তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে রোকেয়া বেগম (৫৫) নামের এক নারীকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। উপজেলার উত্তর কেরোয়া গ্রামের হাজী বাদশা মিয়ার বাড়িতে সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। একই সময়ে পেটানো হয় তাঁর কন্যা জান্নাতুল ফেরদাউসকে (২৩)। তাঁদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বিরোধীয় জমি থেকে সুপারি পাড়তে বাঁধা দেওয়ায় ঘটনার সূত্রপাত। একই বাড়ির শহিদ মোবারক হোসেন (৫৫), ফাতেমা আক্তার (৩৫), মোহাম্মদ আমিন (৫০), আমির হোসেন (৫২), সৌরভ (২৮), সুমন হোসেন (৩৫) ও আলমগীর হোসেন (৩২) এ হামলা চালায় বলে আহতদের অভিযোগ। আহত নারীদ্বয় ওই ওয়ার্ডের মৃত ইউপি সদস্য খোরশেদ আলমের স্ত্রী ও কন্যা। কিছুদিন পূর্বেও ওই তাদেরকে অভিযুক্তরা মারধর করলে থানায় মামলা করেন তাঁরা। আহত রোকেয়া বেগম বলেন, প্রায় ৬ মাস পূর্বে তাঁর স্বামী ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এরপর থেকেই তাঁদের ৪৫ বছরের ভোগ-দখলীয় জমিটি দখল করতে চায় অভিযুক্তরা। ঘটনার সময় সুপারি পাড়তে যায় তাঁরা। এ নিয়ে বাঁধা দিলে পিটিয়ে ও কুপিয়ে তাদেরকে আহত করা হয়। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ফাতেমা বেগম বলেন, আমার ভাই শহিদ মোবারক অন্য লোকের কাছে পৈত্রিক বাগানের সুপারি বেচে দেন। ওই সুপারি পাড়তে গেলে রোকেয়া বেগম বাঁধা দিলে ঝগড়া হয়। তাঁরা কিভাবে আঘাত পেয়েছেন আমরা জানি না। রায়পুর থানার উপ-পরিদর্শক অসীম ধর বলেন, অভিযুক্ত শহিদ মোবারক হোসেন ও আলমগীর হোসেন নামের দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁদের নামে রায়পুর থানায় নিয়মিত মামলা হয়েছে।

Previous articleসাপাহারে আর্মড পুলিশের নকল পোশাকসহ মোটরসাইকেল ছিনতাইকারী আটক
Next articleচাঁপাইনবাবগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।