এস এম শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে মাত্র দুইশ টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে আনিকা আক্তার (৯) নামের এক তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীকে রশি দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার বিকেলে ক্ষেতলাল উপজেলার ধনতলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ওই নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এঘটনায় রাতেই মামলার পর অভিযুক্ত বেলী বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নীরেন্দ্রনাথ মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন । গ্রেপ্তারকৃত বেলী বেগম ধনতলা বাজার এলাকার আবু বক্কর সিদ্দিকের স্ত্রী।

নির্যাতনের শিকার আনিকা আক্তার ধনতলা বাজার এলাকার আনিসুর রহমানের মেয়ে। সে স্থানীয় সমান্তাহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে (ওসি) নীরেন্দ্রনাথ মন্ডল জানান, ধনতলা বাজারের চা বিক্রেতা বেলী বেগম চা বিক্রি করছিলেন। এমন সময় ক্যাশ বাক্সে দুইশটাকা না থাকার অভিযোগ এনে আনিকাকে বাজারের পাশে রশি দিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যতন করে। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে আনিকা দুইশ টাকা চুরি করেছে বলে অভিযোগ করেন বেলী বেগম। ওসি আরো জানান, গাছে বাঁধা ওই শিশু টাকা চুরির কথা অস্বীকার করে চিৎকার করে কাঁদতে থাকে। স্থানীয় একজন ঘটনাটি ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দিলে মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। মামলা হলে অভিযুক্ত বেলী বেগমকে রাতেই গ্রেপ্তার করা হয়।

Previous articleদক্ষিণাঞ্চলে দ্বিতীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র হবে: প্রধানমন্ত্রী
Next articleনির্বাচন এখন কতিপয় জটিল অসুখে আক্রান্ত, গণতন্ত্রের অবস্থা সংকটাপন্ন: ইসি মাহবুব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।