তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মোল্লা পরিবার থেকে চেয়ারম্যানসহ ইউপি সদস্য প্রার্থী হয়েছেন বাবা, ছেলে ও মেয়ে। তাঁরা হলেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রশিদ মোল্লা । রশিদ মোল্লার ছেলে ইউপি সদস্য প্রার্থী জাকির হোসেন মোল্লা, দিদার হোসেন মোল্লা, মেয়ে ঝড়না ও জোসনা বেগম প্রার্থী।

আবদুর রশিদ মোল্লা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, তার মেজো ছেলে জাকির হোসেন মোল্লা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। ছোট ছেলে দিদার হোসেন মোল্লা উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগের যুগ্নআহবায়ক ও দুই মেয়ে গৃহিনী। তারা বাবা, দুই ছেলে একই ওয়ার্ডে এবং দুই মেয়ে পৃথক দুই ওয়ার্ডে প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (৪ অক্টোবর) বিকালে জানতে চাইলে আবদুর রশিদ মোল্লা বলেন, তিনি তিনবার নৌকার মনোনয়ন চেয়েছিলেন। না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন এবং তাঁর আরও দুই ছেলে ও দুই মেয়ে ইউপি সদস্য হিসেবে প্রার্থী হয়েছেন। রাজনীতি ও ভোটের লড়াইয়ে নামলেও তাঁদের পারিবারিক সম্পর্কের কোনো অবনতি ঘটেনি।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা দিদার হোসেন মোল্লা বলেন, আমি ও আমার বড় ভাই ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন মোল্লা একই ওয়াড থেকে ইউপি সদস্য হিসেবে প্রার্থী হয়েছি। নির্বাচন নিয়ে ভোটের প্রতিযোগিতা থাকলেও তাঁদের পারিবারিক সম্পর্ক ঠিক আছে। তিনি আরও বলেন, মোল্লা পরিবার তাঁর দাদাকুলের পরিবার। ওই পরিবারের বেশি প্রার্থী হওয়ায় তিনি এবারের ভোটে সবচেয়ে বেশি লাভবান হবেন। তিনি এই প্রথম ইউপি সদস্য পদে নির্বাচন করছেন। তিনি দল করে মানুষকে সেবা দিয়ে আসছেন। জয়ের ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

৪নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য প্রার্থী জাকির হোসেন মোল্লা। একই ওয়ার্ডে প্রার্থী হয়েছেন তারই ছোট ভাই দিদার হোসেন মোল্লা। আবার তাদেরই ছোট দুই বোন সংরক্ষিত নারী ১.২.৩ নং ওয়ার্ডে ঝড়না বেগম ও ৭.৮.৯ নং ওয়ার্ডে জোসনা বোগম।।।

নৌকার প্রার্থী ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আবু সালেহ মিন্টু ফরাজি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকার বিদ্রোহ প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করছেন আবদুর রশিদ মোল্লা। তাকে সহযোগিতায় ইউপি সদস্য হিসেবে প্রার্থী হয়েছেন তার দুই ছেলে, দুই মেয়ে ও দুই স্বজন । তিনি আশা করেন, মোল্লা পরিবারের বেশি প্রার্থী হওয়ায় এবারে নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যানে বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন।

উপজেলা নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ হারুন মোল্লা বলেন–বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে ৫১ চেয়ারম্যান, ১০০ জন সংরক্ষিত ও ৪৬০ জন ইউপি সদস্য প্রার্থীর প্রার্থীতা বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে। ২৮ নভেম্বর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে নির্বাচন হবে। তবে- দক্ষিন চরবংশি ইউপিতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রশিদ মোল্লাসহ তার ৪ সন্তান ইউপি সদস্য প্রার্থী হিসেবে তাদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।

Previous article১২ কেজি এলপি গ্যাসের দাম এখন ১৩১৩ টাকা
Next articleআপিল শুনানির আগে মৃত্যুদণ্ডের সংবাদ সঠিক নয়: আইনমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।