তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কার্যালয় ভাংচুরসহ স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর নৌকা চেয়ারম্যান প্রার্থীর সন্ত্রাসীদের হামলার অভিযোগ উঠেছে। এসময় আরো প্রায় ১০ কর্মী আহত হয়েছে। আহত প্রার্থী রাতেই হামলার ঘটনাটি সংশ্লিষ্ট রির্টানিং কর্মকর্তা, ইউএনও, এসিল্যান্ড, ওসিকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রার্থীকে শান্তনা জানান।

এছাড়াও কেরোয়া ইউপিতে একইদিন পৃথকস্থানে নৌকার পক্ষের কর্মীরা ইসলামী আন্দোলনের (হাতপাখা) ও সোনাপুর ইউপিতে জাপার (লাঙ্গল) প্রার্থীর কর্মীদের উপর হামলা হয় বলে অভিযোগ।

শনিবার (১৩ নভেম্বর) বিকালে উপজেলার কেরোয়া ইউপির মীরগঞ্জ সড়কের পুর্ব কেরোয়া গ্রামের মানছন পাটোয়ারী বাড়ির সামনে বঙ্গবন্ধু পাঠাগারের নির্বাচনী অফিসে এসব অভিযোগ করেন। আ.লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. বাবুল পাটোয়ারী। তিনি স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, দুপুরে লক্ষ্মীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত দুই স্কুল ছাত্রীর রায়পুরের লুধুয়া গ্রামে জানাজা শেষে ওয়াজ উদ্দিনের পুলের সামনের মসজিদে আসরের নামাজ শেষ করে গনসংযোগ করছিলেন। সন্ধায় তার কাছে সংবাদ আসে নির্বাচনী কার্যালয়ে সন্ত্রাসী হামলা করে নৌকার সমর্থকেরা। তকন ঘটনাস্থলে পৌঁছলে তার উপর মোটরসাইকেল তুলে দিয়ে আহত করে। এসময় তার ৫/৬ জন কর্মীকেও মারধর করা হয়। পরে তিনিসহ আহতরা রায়পুর সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। আরো আহত ৪ জন ভর্তি রয়েছেন।

এ হামলার নির্দেশকারী নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহিনুর বেগম রেখা ও তার দলবল। তার নির্দেশে সন্ত্রাসী বাহিনী তাদের উপরে হামলা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি ছোট বেলা থেকেই আওয়ামীলীগের সাথে জড়িত। বর্তমানে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য। একসময় বিদেশ চলে যাই। সেখান থেকে এসে বর্তমানে কাফিলাতুলি বাজারে মিউচ্যুয়ার ট্রাস্ট ব্যাংকে এজেন্ট ব্যাংকিং ব্যবসা করছি। তার মরহুম বাবা শাহজালাল পাটোয়ারী মুক্তিযোদ্ধা সহকারি ছিলেন ও চাচা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন।-নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হামলা হবে, প্রাণ নাশের হুমকি দিবে এটা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনে অর্থ দিয়ে নৌকা নিয়ে আসা চেয়ারম্যান প্রার্থী তার পরাজয় নিশ্চিত বুঝতে পেরে আমাকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দিতে চাইছেন। আর এ কারণে তিনি আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন। বর্তমানে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থীর সন্ত্রাসীদের ভয়ে তিনি এবং তার পরিবার নিরাপত্তারহীনতার মধ্যে রয়েছেন। তাই এক সময়ের আতঙ্কের জনপদ রায়পুর উপজেলা এই ইউনিয়নের নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর নজরদারি বৃদ্ধির পাশাপাশি নির্বাচন কর্মকর্তার সুদৃষ্টি প্রত্যাশা করনে। এ হামলার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে এসে নির্বাচনের পরিবেশ ফিরিয়ে আনার দাবি জানান তিনি।

রায়পুর কেরোয়া ইউনিয়নের রির্টানিং কর্মকর্তা ও শিক্ষা অফিসার মোঃ মোস্তাক আহম্মদ বলেন,আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী বাবুল পাটোয়ারীর লিখিত অভিযোগ গ্রহন করে ওসিকে ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

Previous articleআবরার হত্যা মামলার রায় ২৮ নভেম্বর
Next articleপাঁচবিবিতে উৎসব মুখর পরিবেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।