বাংলাদেশ প্রতিবেদক: এক তরুণীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট দেয়ার অভিযোগে ৫৭ ধারায় দায়ের করা মামলায় সোহেল রানা (২২) নামে এক যুবককে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

একই সাথে তাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। জরিমানার টাকা ভুক্তভোগী তরুণীকে দেয়ার কথা আদেশে উল্লেখ করা হয়।

রোববার দুপুরে রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

কারাদণ্ড প্রাপ্ত সোহেল রানা নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার পাকুড়িয়া উত্তরপাড়া গ্রামের শাহাদৎ হোসেন ওরফে সাধুর ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ইসমত আরা গণমাধ্যমকে জানান, সোহেল রানা স্থানীয় এক কলেজছাত্রীকে প্রায়ই প্রেমের প্রস্তাব দিতেন। কিন্তু ওই কলেজছাত্রী তাকে সব সময়ই এড়িয়ে চলতেন। তার কাছে পাত্তা না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন সোহেল রানা। এক পর্যায়ে তিনি নিজের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে ওই কলেজছাত্রীর বাবার নামে ফেসবুকে একটি ফেক আইডি খোলেন। এরপর ওই ফেসবুক আইডি থেকে কুরুচিপূর্ণ ও অশ্লীল পোস্ট দিতে থাকেন সোহেল রানা। ওই কলেজছাত্রী সম্পর্কে অব্যাহতভাবে বিভিন্ন ধরণের বাজে মন্তব্যও প্রকাশ করতে থাকেন তিনি। পরে বিভিন্নজনের মাধ্যমে বিষয়টি নজরে আসে ওই কলেজছাত্রীর বাবার। এরপর এ ঘটনায় ২০১৮ সালের ১৪ জুন তিনি মান্দা থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় মামলা করেন।

অ্যাডভোকেট ইসমত আরা আরো জানান, মামলার পর পুলিশ তদন্ত শেষে আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। এরপর আদালত মোট ছয়জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত রোববার এই রায় ঘোষণা করেন।

Previous articleদেশে করোনায় মৃত্যু একলাফে বাড়ল দেড়গুণ, নতুন শনাক্ত ১২ হাজার ১৮৩
Next articleনির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ রাখতে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে: এএসপি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।