বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুলাদীতে মামলা তুলে নিতে বাদীর ভাইয়ের গরু ও খড়ের গাদা পোড়ানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের রাঘুয়া কাজিরচর গ্রামে খলিল ফকিরের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

খলিল ফকিরের ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মন্নান ফকিরের প্রতিপক্ষরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্থরা। জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে খলিল ফকির গোয়াল ঘরে গরু তালা মেরে রেখে ঘুমাতে যান। রাত ১২টার দিকে গরুর ডাক এবং আগুন দেখে বের হন। আগুনের লেলিহান শিখা দেখে ভয়ে কেউ সামনে যেতে পারেনি। ফলে গরু এবং খড়ের গাদা পুড়ে যায়। পরে আগুনে পুড়ে খুটি ভেঙে পরলে গরুটি বাইরে ছুটে আসে।

খলিল ফকিরের বড়ভাই আব্দুল মন্নান ফকিরের সাথে একই গ্রামের সবুজ খান, তার ছেলে রাব্বী খান ও তাদের লোকজনের সাথে বিরোধ রয়েছে। বিরোধের জেরধরে গতবছর ৫ নভেম্বর রাব্বী খান লোকজন নিয়ে আব্দুল মন্নান ফকিরের বাড়িতে হামলা চালায়। ওই ঘটনায় মন্নান ফকির বাদী হয়ে রাব্বী খানসহ ৫জনকে আসামী করে মুলাদী থানায় মামলা করেন। মামলা থেকে জামিনে বের হয়ে আসামীরা কয়েক বার মামলা তুলে নিতে হুমকি দিয়েছেন। মামলা তুলে না নেওয়ায় মঙ্গলবার রাতে গোয়াল ঘর ও খড়ের গাদায় আগুন আগুন দিতে পারে বলে দাবী করেছেন খলিল ফকির ও আব্দুল মন্নান ফকির।

মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস.এম মাকসুদুর রহমান বলেন, গরু ও খড়ের গাদা পোড়ানোর সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Previous articleমনিরামপুরে ধান ক্ষেত থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার
Next articleআফিফ-মেহেদির দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে জয় পেল বাংলাদেশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।