লিটন মাহমুদ: ধর্ম অবমামনার কথিত অভিযোগে শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র মন্ডল জামিন পাওয়ার পর তার আইনজীবী বলেছেন, ছাত্র-শিক্ষকদের ‘কুচক্রী’ চিন্তার অবসান হয়েছে।

রোববার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ ও দায়িত্বপ্রাপ্ত বিচারক মোতাহারাত আখতার ভুইয়ার আদালত হৃদয় চন্দ্র মন্ডলের জামিন দেন।

হৃদয় চন্দ্র মন্ডলের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শাহীন মোহাম্মদ আমানুল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ‘২২ বছরের শাশ্বত শিক্ষক হৃদয় চন্দ্র মন্ডলের শিক্ষাকে ধ্বংস করার জন্য জঙ্গিগোষ্ঠী যে কুচক্রী চিন্তা করেছিল, তার অবসান হয়েছে। জামিনের রায়ে হৃদয় মন্ডল তার অধিকার ফিরে পেয়েছেন। কুচক্রীরা কুমন্ত্রণাকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি।’

তিনি জানান, শুনানির পর ৫ হাজার টাকা মুচলেকা দিয়ে হৃদয় মন্ডল জামিন পান।

হৃদয় মন্ডলের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আসাদ যে অভিযোগ করেছিল, মহানবী ও কোরআন অবমাননার তার কোনো কিছুই সরকারপক্ষ আদালতে প্রমাণ করতে পারেনি। উল্টো অডিওতে শোনা গেছে, হৃদয় মন্ডল মহানবীকে মহামানব হিসেবে বলছেন। ক্লাসে তিনি বলেছেন, ধর্ম হল বিশ্বাসের, বিজ্ঞান হল যুক্তির। কিন্তু ছাত্ররা সেটা না মেনে, তাকে ইনটেনশনালি উত্তেজিত করতে চেয়েছে। আমরা আদালতে সেটা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি।’

হৃদয় মন্ডলের স্ত্রী ববিতা হাওলাদার বলেন, ‘আমার স্বামী নির্দোষ। সেটাই আজ আদালতে প্রমাণিত হল।’

Previous articleকিশোর চালকের ভয়ে উল্টে গেল অটোরিকশা, প্রাণ গেল গৃহবধূর
Next articleঈদে লঞ্চের টিকিট পেতে লাগবে জাতীয় পরিচয়পত্র
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।