প্রদীপ অধিকারী: জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে আলোচিত আয়েশা ছিদ্দিকা (২০) নামের কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ ও শ্বাসরোধ করে হত্যা মামলার ২ ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পাঁচবিবি থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটে গতকাল শনিবার (৭ মে) উপজেলার আটাপুর ইউনিয়নের মাঝিনা গ্রামে । এ ঘটনায় ঐ কলেজ ছাত্রীর বড় ভাই মোস্তাক হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি ধর্ষণ ও হত্যা মামলা দায়ের করলে ঐদিন বিকেলেই ২ ধর্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো উপজেলার মাঝিনা গ্রামের শ্রী শংকর মহন্তের ছেলে শ্রী রনি মহন্ত (৩০) ও একই এলাকার খোরশেদ মন্ডলের ছেলে জাহিদ হাসান ওরফে কামিনি জাহিদ (৩২)। আয়েশা ছিদ্দিকা ঐ গ্রামের মোজাম্মেল হকের মেয়ে ও জয়পুরহাট সরকারি কলেজে উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী ।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দেব জানান, রনি ও জাদিহ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আয়েশাকে ধর্ষণ ও হত্যার কথা স্বীকার করে। উল্লেখ্য যে, ৬ মে শুক্রবার আয়েশার বাড়ীর সকলেই ঈদের দাওয়াত খেতে গেলে পাশের বাড়ির দুই ভাস্তীকে নিয়ে শুয়ে পড়ে। পরে ভাস্তীকে রুমে রেখে সে পাশের রুমে ঘুমিয়ে পরে। এদিকে বাড়ী ফাঁকা পেয়ে ধর্ষক রনি ও জাহিদ বাড়ী সীমানা প্রাচীর টপকিয়ে ঘরে ঢুকে আয়েশার মুখে কাপড় গুজে ধর্ষণ ও পরে শ্বাসরোধ করে আয়েশাকে হত্যা করে তারা । গ্রেফতারকৃদের আজ রবিবার দুপুরে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

Previous articleভূঞাপুরে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণ, সহযোগীসহ যুবক গ্রেফতার
Next articleনোয়াখালীতে সেপটিক ট্যাংক থেকে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।