মোঃ জালাল উদ্দিন: সিলেট মহানগরীর কুমারগাঁওয়ে মসজিদের জায়গা নিয়ে দু’পক্ষে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার ২৮ মে ২০২২ইং, দুপুরে স্থানীয় মোঃ ময়না মিয়া বাদি হয়ে অর্ধশতাধিকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ নাজমুল হুদা খান।

শুক্রবার ২৭ মে ২০২২ইং, জুম্মার নামাজের পর কুমারগাঁওয়ে মসজিদের জায়গা নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মসজিদের কিছু জায়গা নিয়ে প্রায় এক বছর ধরে স্থানীয় মোঃ ময়না মিয়ার লোকজনের সাথে মসজিদ কমিটির বিরোধ চলে আসছিলো। এরই জের ধরে শুক্রবার জুম’আর নামাজের পর পঞ্চায়েতের এক মুরুব্বিকে একপক্ষের লোকজন গালিগালাজ করেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মসজিদ কমিটি এবং স্থানীয় মোঃ ময়না মিয়ার বাড়ির লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। পঞ্চায়েত পক্ষ ও মোঃ ময়না মিয়ার বাড়ির লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘাতে জড়িয়ে পড়েন। এসময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয় এবং উভয়পক্ষ থেকে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, সংঘর্ষে গোলাগুলির ঘটনাও ঘটে। তবে পুলিশ বলছে- কোনো গোলাগুলির ঘটনা ঘটেনি। প্রায় পৌনে ১ ঘণ্টা সংঘর্ষ চলার পর বেলা আড়াইটার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এ ঘটনায় উভয়পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে সাতজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁরা হলেন কুমারগাঁও গ্রামের মোঃ আবদুস সালাম (৩৩), মোঃ রইছ উদ্দিন (৫০), মোঃ আঙ্গুর মিয়া (৩৫), মোঃ আবদুল কালাম (৩০), মোঃ গিয়াস উদ্দিন (৪০), মোঃ আবদুল আজিম (২৬) ও মোঃ আলাউদ্দিন (৬২)। এ ছাড়া আরও ১২ থেকে ১৩ জন স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

Previous articleতাহিরপুরে পুলিশ সুপারের উদ্যোগে ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প ও ঔষধ বিতরণ
Next articleনোয়াখালীতে ৯টি ক্লিনিক সিলগালা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।