প্রদীপ অধিকারী: জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে কাজের কথা বলে নিজ বাড়ীতে ডেকে নিয়ে ৪র্থ শ্রেনির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে মমতাজ (৮০) নামের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ঐ ছাত্রীর মা বাদী হয়ে শনিবার (১৮ই জুন) বিকেলে পাঁচবিবি থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ ঐদিনই অভিযুক্ত মমতাজ কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার ১৫ই জুন উপজেলার বড়মানিক গ্রামে। মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বড়মানিক গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের ছেলে মমতাজের স্ত্রী ৫/৬ বছর পূর্বে মারা যায়। তার ছেলে মেয়ে অন্যত্র থাকায় মেয়েটির মা প্রায় ৪ বছর ধরে ঐ বাড়ীতে রান্নাবান্নাসহ গৃহস্থালির কাজ করত। ঘটনার দিন সে ঐ বাড়ীতে কাজে না গিয়ে চাতালে করতে যায়। এদিকে কাজের মেয়ে বাড়ীতে না আসায় মমতাজ মেয়েটির বাড়ীতে গিয়ে মায়ের বদলে তার ৪র্থ শ্রেনি পড়ুয়া মেয়েকে কাজের কথা বলে নিজ বাড়ীতে ডেকে নেন।

বাড়ী ফাঁকা থাকার সুযোগে মমতাজ মেয়েটিকে ঘরে নিয়ে মুখ চেপে ধরে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এসময় মেয়েটি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করে।

অপরদিকে ঘটনাটিকে ধাপা চাপা দেওয়ার জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য জাকির হোসেন ও নাজমুল হক বাবু মেয়ের ভাই মুন্নাকে ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে আপোস মিমাংসা করার কথা বলে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নেয়। আপোসের বিষয়টি জানতে পেরে মেয়েটি আত্মহত্যার চেষ্টা করে বলে মামলায় উল্লেখ রয়েছে।

এবিষয়ে পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, অভিযোগ পেয়ে আসামীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Previous articleমৌলভীবাজারে পানিবন্দি ২’শ গ্রামের ১ লাখ ৬০ হাজার মানুষ
Next articleরাজশাহীর বাঘা উপজেলা সীমান্তে ৯১০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।