বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের পরিবহন ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা আবু ছায়েদ ভূঁঞা রিপন হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী ও ২নং আসামি ইকবাল হোসেন সাইফুলকে(৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত সাইফুল উপজেলার মীরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের তবারক উল্যহার ছেলে।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় ঢাকার শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি জানান, গত বছরের ২৮ অক্টোবর গভীর রাতে লাল সবুজ পরিবহনের বেগমগঞ্জের চৌরাস্তার কাউন্টারের ম্যানেজার ও উপজেলার মিরওয়ারিশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবু ছায়েদ রিপনকে কুপিয়ে হত্যা করে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। এ সময় তার সাথে থাকা নগদ আড়াই লাখ টাকাও লুট করে নিয়ে যায় হত্যাকারীরা। পর দিন পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দিলে তদন্তে নামে পুলিশ। পুলিশ ঘটনাস্থল মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারইয়ার হাটসংলগ্ন গাছতলা এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে প্রকাশ্যে ও গোপনে তদন্ত চালায়। এক পর্যায়ে ঘটনার সাথে সাইফুলের সম্পৃক্ততা পেলে সে এলাকা ছেড়ে গা ঢাকা দেয়। পরবর্তিতে সাইফুলকে হত্যাকান্ডের মাস্টার মাইন্ড ও মুল পরিকল্পকারী হিসেবে সনাক্ত করে ২নং আসামি করে মামলায় দায়ের করা হয়।

ওসি আরো জানান, শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি সাইফুল দেশে থেকে পালাতে বিমান বন্দর এলাকায় অবস্থান করছে, এমন সংবাদে শুক্রবার বিকালে বিমানবন্দর এলাকায় অভিযান চালিয়ে আমরা সাইফুলকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। তাকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বিকালে সাইফুলকে আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান ওসি মীর জাহিদুল হক রনি। এ হত্যাকান্ডটি চাঞ্চল্যকার চিহিৃত করে এর আগে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আরো ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠায়। বর্তমানে তারা জামিনে রয়েছে।

Previous article‘খালেদা জিয়া গৃহবন্দী, আপনারা পানিবন্দী’
Next articleর‌্যাব কর্তৃক জাকারিয়া পিন্টুর নামে অপবাদের অভিযোগে বিএনপি’র প্রতিবাদ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।