বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পিরোজপুরের নাজিরপুরে পরকীয় প্রেমের বাধা দেয়ায় মোহনা খানম (১৫) নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে গুরুতর অগ্নিদগ্ধ ওই স্কুল ছাত্রীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা বার্ন ইউনিটে প্রেরন করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দিঘীরজান গ্রামে।

মোহনা উপজেলার দিঘীরজান মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে আসন্ন এসএসসি পরীক্ষার্থী। ওই স্কুল ছাত্রীর পিতা মো. কাইয়ুম শেখ জানান, আজ দিন দুপুর ১২টার দিকে তার কন্যা ঘরে বসে বই পড়ছিল। এ সময় হত্যার উদ্দেশ্যে বাঘাজোড়া গ্রামের হান্নান গাজীর ছেলে জিসান গাজী (২২) হঠাৎ ঘরে ঢুকে মোমবাতির আগুন দিয়ে ওই ছাত্রীর গায়ে অগ্নিসংযোগ করে। এতে সে গুরুতর আহত হয়।

তিনি আরো জানান, ওই জিসান তার কন্যা মোহনার এক বিবাহিত বান্ধবীর সাথে পরকীয়া প্রেম করে। মোহনা তার বান্ধবীকে পরকীয়া প্রেম করতে নিষেধ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে জিসান তার গায়ে অগ্নিসংযোগ করে। জিসান উপজেলার পাতিলাখালী গ্রামের কামরুল হাজরার বাড়িতে ভাড়া থাকে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার দীপান্বীতা দেবনাথ জানান, আগুনে ওই স্কুল ছাত্রীর বুক, পেটসহ শরীরের ঝুঁকিপূর্ণ প্রায় ৪০ ভাগ পুড়ে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। নাজিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির জানান, ঘটানটি শুনে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Previous articleযশোরে যুবদলের সহসভাপতিকে কুপিয়ে হত্যা
Next article৮০০০ মুসলমান হত্যা: ২৭ বছর পর নেদারল্যান্ডসের দুঃখপ্রকাশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।