বাংলাদেশ ডেস্ক: সেব্রেনিৎসা গণহত্যায় আট হাজার মুসলমানের প্রাণরক্ষায় ব্যর্থতার জন্য নেদারল্যান্ডস সরকার অনুতপ্ত৷ সেব্রেনিৎসা গণহত্যার ২৭ বছর পূর্তিতে তাই দুঃখপ্রকাশ করেছেন ডাচ প্রতিরক্ষামন্ত্রী কাইসা ওলোঙ্গ্রেন৷

সোমবার পোতোচারিতে অনুষ্ঠিত সেব্রেনিৎসা গণহত্যার ২৭ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানে ওলোঙ্গ্রেন বলেন, ‘সেদিন সেব্রেনিৎসার মানুষদের রক্ষায় পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে৷ ব্যর্থ হবার মতো পরিস্থিতি তৈরিতে ডাচ সরকারেরও দায় ছিল৷ আমরা সে কারণে গভীরভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।’

১৯৯৫ সালের ১১ জুলাই বসনিয়ান সার্ব বাহিনী আট হাজার বসনিয়াক মুসলিম পুরুষ ও বালককে নির্মমভাবে হত্যা করে৷ সেই গণহত্যার সময় ডাচ শান্তিরক্ষীদের প্রশ্নবিদ্ধ ভূমিকার জন্য এই প্রথম নেদারল্যান্ডস সরকারের পক্ষ থেকে তাদের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নিহতদের স্বজনদের কাছে ক্ষমা চাইলেন৷

সেব্রেনিৎসায় যা ঘটেছিল

১৯৯৫ সালের ১১ জুলাই৷ তিন বছর আট মাস ধরে চলা বলকান যুদ্ধের একেবারে শেষদিকের ওই সময়টায় বসনিয়াক মুসলিম অধ্যুষিত সেব্রেনিৎসার নিরাপত্তার যাবতীয় দায়িত্ব ছিল ডাচ ও জাতিসঙ্ঘ বাহিনীর ওপর৷ কিন্তু বসনিয়ান সার্ব বাহিনী তা সত্ত্বেও হামলা চালিয়ে আট হাজার মুসলিম পুরুষ ও বালককে হত্যা করে৷ নিহতদের গণকবর দেয়া হয়৷ এ ঘটনার কারণে শান্তিরক্ষী বাহিনী, ডাচ সরকার এবং জাতিসঙ্ঘ তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে৷

এক লাখেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছিল সেই যুদ্ধে৷ সেব্রেনিৎসা হত্যাকাণ্ডকে ‘গণহত্যা’ আখ্যায়িত করে এর জন্য মূলত সাবেক যুগোস্লাভিয়াকে দায়ী করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল৷ নারকীয় সেই ঘটনায় নিজেদের দায় স্বীকার করে নিহতদের স্বজনদের ক্ষতিপূরণ দিয়েছে ডাচ সরকার৷ সোমবার ডাচ প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলোঙ্গ্রেন সেব্রেনিৎসায় নিহতদের স্বজনদের উদ্দেশে আরো বলেন, ‘আপনাদের যে কষ্ট তা লাঘব করা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়, এখন আমরা শুধু ইতিহাসকে সোজা চোখে দেখতে পারি৷’

গত মাসে ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে ২৭ বছর আগে পূর্ব বসনিয়ায় শান্তি বজায় রাখতে যেসব সৈন্য পাঠানো হয়েছিল তাদের প্রতি সরকারের আচরণের জন্য দুঃখপ্রকাশ করেন৷ রুটে স্বীকার করেন, সেই সময় পর্যাপ্ত রসদ ছাড়া ডাচবাট থ্রি ইউনিটকে এক ‘অসম্ভব দায়িত্ব’ দেয়া হয়েছিল৷
সূত্র : ডয়চে ভেলে

Previous articleপরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্কুলছাত্রীকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা!
Next articleদেশে খাদ্যের অভাব হবে না: খাদ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।