এসকে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের পশ্চিম রজপাড়া থেকে পূর্ব রজপাড়া পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার রাস্তাটির নির্মান কাজ দীর্ঘ দুই বছর যাবৎ বন্ধ রয়েছে। সমান্য একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তায় পানি জমে যাচ্ছে। কোথাও কোথাও সৃষ্টি হচ্ছে কর্দমাক্ত জলাবদ্ধতা। চলাচলে চরম ভোগান্তিতে পরেছে গ্রামবাসীরা। বিভিন্ন সময় ঘটছে ছোট- খাট দুর্ঘটনা। তাই রাস্তাটি দ্রুত নির্মানের দাবি জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত দু’বছর আগে এ রাস্তাটির নির্মান কাজ শুরু করা হয়। রাস্তায় বিছানো ছিলো ইট। তাও উঠিয়ে নিয়ে গেছে। দুই পাশের মাটি কেটে ফেলানো হয়েছে বালু। কিন্তু বর্তমানে রাস্তার কাজ বন্ধ রয়েছে। একটু বৃষ্টি হলেই বিভিন্ন স্থানে জমে যায় পানি। এর ফলে যানবাহন তো দুরে কথা পায়ে হেঁটে যাওয়াই কষ্ট সাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। পশ্চিম রজপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সোহেল হাওলাদার বলেন, আগে রাস্তায় ইট ছিলো। ঠিকাদার সেই ইটও রাস্তা থেকে উঠিয়ে নিয়ে গেছে। এর পর বালু ফেলা হয়। কিন্তু রাস্তা নির্মান হয়নি। বর্তমানে এ রাস্তাটি চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পরেছে।

টমটম চলাক রাকিবুল বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রাস্তার কাজ বন্ধ রয়েছে। তাই এই রাস্তায় তাদের গাড়ি চালাচ্ছেনা। তবে বিশেষ কোন করনে গাড়ি ঢুকালেও বেকায়দায় পরতে হয়। এছাড়া গাড়ি উল্টে অনেকে আহত হয়েছে। একই গ্রামের গৃহবধূ পারভিন বেগম বলেন, এই রাস্তায় পানি জমে থাকার করনে তাদেরে ছেলে মেয়েরা স্কুল-কলেজে যেতে পারছেনা। এমনকি কেউ অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে দূর্ভোগের সীমা থাকেনা।

এ বিষয়ে ঠিকাদার মো. হাফিস বলেন, এ রাস্তাটির কাজ শ্রীঘ্রই সম্পন্ন করা হবে। ওই ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য মো.আব্দুল রব জোমদ্দার বলেন,এ রাস্তার জন্য গ্রামের মানুষ চরম ভোগান্তিতে রয়েছে।

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.মাহামুদুর রহমান সুজন মোল্লা বলেন, আগের যে ঠিকাদার কাজটি পেয়েছিল স্থানীয় ঝামেলার করানে তা করতে পারেনি। ওই এলাকার মানুষের দূর্ভোগের কথা চিন্তা করে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে বলার পর কাজটি দ্রুত সম্পন্ন করার চেষ্ট চলছে।

Previous articleরাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আগামীকাল থেকে সংলাপে বসছে ইসি
Next articleনির্বাচন নয়, সরকারের পতন ঘটানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি: মির্জা আব্বাস
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।