আবু বক্কর সিদ্দিক: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার লালচামার খেঁয়াঘাট সংলগ্ন তিস্তানদী থেকে অপহরণের ১৭ ঘন্টা পর শাহরিয়ার রহমান শিহাব (১৫) নামে অপহৃত কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শিহাব বেলকা এমসি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র ও শান্তিরাম (ক্ষুদিরাম) গ্রামের দদবিশিষ্ট ব্যবসায়ী আনিছুর রহমানের ছেলে।

জানা যায়, শুক্রবার বিকালে অনুসন্ধান চালিয়ে কাপাসিয়া ইউনিয়নের লালচামার খেয়াঘাট সংলগ্ন তিস্তানদী কোল থেকে গলায় কাপড়ের রশি পেঁচানো শিহাবের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরআগে বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) রাত সোয়া ১০টার দিকে বেলকা চৌ-রাস্তা মোড়স্থ বাবার দোকান থেকে নিজ বাড়িতে আসার কথা থাকলেও শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বাড়িতে আসেনি শিহাব। ফলে শিহাবের বাবা আনিছুর রহমান থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেন। এর প্রেক্ষিতে অনুসন্ধান চালিয়ে বিকালে উক্ত স্থান থেকে শিহাবের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ছেলে শিহাবের হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবী করে আনিছুর রহমান জানান, তিনি একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। কারো সঙ্গে শত্রুতা নেই। সবার সঙ্গে সমান সম্পর্ক। ততিনি এ ঘটনাকে পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে ধারণা করছেন। স্থানীয়রা জানান, শিহাব সহজ-সরল ও শান্ত প্রকৃতির প্রকৃতির ছেলে। শিহাবের হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতদেরকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করা দরকার। তারা এ স্থানে তথা ক্ষুদিরাম-খালেকের মোড়-কালিতলায় পরপর যে ক্#৩৯;টি হত্যাকান্ড ঘটেছে। এসব হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত বিচার করা দরকার বলে মন্তব্য করেন।

থানার নিরস্ত্র পুলিশ পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) আব্দুল আজিজ জানান, শাহরিয়ার রহমান শিহাব হত্যা রহস্য উদঘাটনে ব্যাপক তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। চলছে জিজ্ঞাসাবাদ।

Previous articleরংপুরে ইউনিয়ন পরিষদের পরিকল্পনা উন্নয়ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত
Next articleসরকারি দলের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের দাবিতে রংপুরে বিক্ষোভ সমাবেশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।