আব্দুল লতিফ তালুকদার: দেশে জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে হঠাৎ করেই পরিবহন খরচ বেড়ে গেছে। বিপাকে পড়েছে সাধারণ নিম্ন মধ্যবিত্ত আয়ের মানুষ। অনেকে বিকল্প পরিবহনের কথাও চিন্তা করছেন। অনেক মোটরবাইকার এখন বিকল্প পরিবহন হিসেবে বাইসাইকেলকে বেছে নিয়েছেন।

একদিকে বাইসাইকেল পরিবহনে যেমন জ্বালানী খরচ লাগবেনা অন্যদিকে স্বাস্থ্যের জন্যও বেশ উপকারি এছাড়াও বায়ু ও পরিবেশ দূষণ রোধেও কার্যকরি ভূমিকা রাখে।

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে বাইসাইকেল বিক্রেতা ও সাইকেল বাইকারদের সাথে এ বিষয়ে কথা বলে জানা যায়।

উপজেলার পৌর শহরে ঝন্টু সাইকেল স্টোরের মালিক টুটুল জানান, হঠাৎ তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় মোটরসাইকেল বাইকাররা এখন অনেকেই বাইসাইকেল কিনছেন। তেলের দাম বাড়ার পর থেকে সাইকেল বিক্রি বেড়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, প্রতিটি সাইকেলে প্রায় ৫ থেকে ১০ শতাংশ বেড়েছে।

ব্রাদার্স সাইকেল স্টোরের মালিক মাসুদ বলেন, অনেক মোটরসাইকেল বাইকাররা মোটরসাইকেল রেখে বাইসাইকেল কিনছেন। হঠাৎ তেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় সাইকেলের চাহিদা বেড়েছে। মোটারসাইকেল বাইকার তানভির বলেন, হঠাৎ তেলের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় আর মোটরসাইকেল চালানো সম্ভব না। প্রতি লিটার অকটেনে ৪৬ টাকা বেড়ে যাওয়ায় মোটরসাইকেল চালানো বাদ দিয়েছি। পরিবহন খরচ কমাতে বাধ্য হয়ে বাইসাইকেল কিনেছি। পরিবেশ বান্ধব ও স্বাস্থ্যসম্মত হওয়ায় এখন থেকে বাইসাইকেলই চালাবো। এছাড়াও নিত্যপন্যের দামও লাগামহীন। সকল নিত্যপন্যই এখন সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে।

Previous article‘তিতুমীর থেকে শুরু করে এ জাতির মুক্তির সংগ্রাম অনেকেই করেছেন কিন্তু তারা সবাই ব্যার্থ হয়েছে’
Next articleনোয়াখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ২ জনের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।