মাসুদ রানা রাব্বানী: রাজশাহীর পুঠিয়ায় পদ্মা পরিবহন নামে যাত্রীবাহী একটি বাস উল্টে একজন নিহত হয়েছেন। এ সময় চালক হেলপারসহ আহত হয়েছেন আরও ২৫ জন। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় পুঠিয়া ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেছেন।

শুক্রবার (১৯) আগস্ট দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার ঢাকা- রাজশাহী মহাসড়কের বিড়ালদহ এলাকায় বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশে একাই উল্টে এ ই হতাহতের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম আব্দুর রহিম (৪৫)। তার বাবার নাম রহমান আলী। তিনি পিরোজপুর জেলার বাসিন্ধা।

বিড়ালদহ এলাকার প্রত্যক্ষদশী জাকির হোসেন বলেন, রাত ২টার দিকে বিকট শব্দ শুনে আমরা ছুটে আসি। এরপর দেখতে পাই বাসটি সড়কের পাশে উল্টে পড়ে আছে। বাসের বেশীর ভাগ যাত্রীরা গুরুতর আহত হয়ে পড়ে আছেন। এরপর ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে স্থানীয়দের সহয়তায় গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে ওই রাতেই হাইওয়ে পুলিশ বাসটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান। পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স জরুরী বিভাগের সহকারি চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনা কবলিত অনেক রোগি এখানে আনা হয়েছে। এদের কিছু মূর্মুর্ষ রোগি সরাসরি রামেক হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। শুনেছি সেখানে একজন মারা গেছেন। এছাড়া অল্প আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন।

এ ব্যাপারে পবা হাইওয়ে থানার (শিবপুরহাট) ওসি মোফাকারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ফরিদপুর জেলা থেকে যাত্রী নিয়ে বাসটি রাজশাহীর দিকে যাচ্ছিল। পথে বিড়ালদহ এলাকায় আসামাত্র চালক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেললে বাসটি রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এ ঘটনায় ২৫ জন যাত্রী গুরুতর আহত হয়। তবে আহতদের মধ্যে একজন রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মারা গেছেন। এদিকে দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধার করা হয়েছে।

Previous articleমাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত
Next articleরাবির আবাসিক হলে বজ্রপাতে শিক্ষার্থী গুরুতর আহত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।