বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ফেসবুকে পরিচয়। তারপর প্রেম। এরপর বিয়ে করতে পাসপোর্ট ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশে এসেছে এক ভারতীয় তরুণী। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার পোয়াইল গ্রামে।

ওই গ্রামে ভারত থেকে আসা পূজা বিশ্বাস (১৬) নামের এক তরুণীকে বিয়ের আসর থেকে উদ্ধার করে শনিবার আদালতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ।

ফরিদপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (মধুখালী-বোয়ালমারী ও আলফাডাঙ্গা) সার্কেল সুমন কর জানান, ওই তরুণী কলকাতার নদীয়া জেলার শান্তিপুর থানার ফুলিয়াপাড়া এলাকার সুনীল দাসের মেয়ে। সে শুক্রবার বিকেল ৪টায় ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে আসে।

জানা যায়, ফরিদপুরের বোয়ালমারী পৌরসভার গুনবাহা গ্রামের তন্ময় রাজবংশি (২১) ফেসবুকে ওই তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। শুক্রবার বোয়ালমারীতে আসার পর তাকে তন্ময়ের ভগ্নিপতি গোপাল রাজবংশির বাড়িতে উঠানো হয়। সেখানে শুক্রবার রাতে তন্ময় ও পূজার বিয়ের আয়োজন চলছিল। খবর পেয়ে রাত ১১টার দিকে বিয়ের পিড়ি থেকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। এ সময় তন্ময়কে আটক করে পুলিশ।

বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল ওহাব বলেন, মেয়ের বয়স কম। তাছাড়া মেয়েটির কাছে কোনো পাসপোর্ট কিংবা ভিসা পাওয়া যায়নি। তাকে তন্ময় রাজবংশি ফুঁসলিয়ে কী কারণে এদেশে এনেছে সেজন্য তন্ময় রাজবংশিকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর মেয়েটিকে আদালতের মাধ্যমে কিশোরী সংশোধন কারাগারে
পাঠানো হয়েছে।

Previous articleনোয়াখালীতে ৪ ডাকাত গ্রেফতার
Next articleপাঁচবিবির বীর মুক্তিযোদ্ধ ধীরেন পাহানের মৃত্যু, রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাধিস্থ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।