ফজলুর রহমান: রংপুরের পীরগাছায় তুুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী জামিনে বেড়িয়ে বাদীকে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেন। আসামীর হুমকির কারণে বাদী ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে।

এলাকাবাসী ও মামলা সুত্রে জানা যায়, উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নের সাহেব বাজার এলাকায় ত্রাস হিসেবে পরিচিত আইজল মুন্সি ছেলে শাহ আলম। শাহ আলম অজ্ঞান পার্টির সক্রিয় সদস্য এবং তার নামে একাধিক মামলা রয়েছে। শাহ আলম এলাকার লোকদের প্রায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারধর করে থাকেন। গত ৬ আগস্ট শাহ আলম ও স্থানীয় মোস্তফা এর সাথে লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতি হয়। এর এক পর্যায়ে শাহ আলম পাশের ওয়ার্লি এর দোকান থেকে হাতুড়ি নিয়ে মোস্তফার মাথায় একাধিকবার আঘাত করেন।

স্থানীয় লোকজন গুরুত্বর আহত অবস্থায় মোস্তফাকে পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেন। পরে আহত মোস্তফার স্ত্রী নাজমা বেগম বাদী হয়ে ৭ আগস্ট পীরগাছা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ০৪।

সুচতুর শাহ আলম মামলায় জামিনে বেড়িয়ে আসেন এবং মামলা বাদী নাজমা বেগমকে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেন। মামলা তুলে না নিলে তার স্বামীকে আবারো মারধর করাসহ হত্যার হুমকি দেন। ফলে বাদী ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে।

ওই মামলার বাদী নাজমা বেগম এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমার স্বামীকে মারধর করেও সে ক্ষ্যান্ত হয়নি। মামলা তুলে না নিলে আমাকেসহ আমার স্বামীকে আবারো মারধর করবে বলে হুমকি দেন। মামলার আসামীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

মামলার দায়িত্বপ্রাপ্ত এস আই রফিকুল ইসলাম এর সাথে মোবাইলে কথা হলে তিনি জানান, মামলার চার্জশীট দেয়া হয়েছে। বাদী যোগাযোগ করলে আসামীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হবে। ।

Previous articleশার্শায় মদসহ ৩ ভারতীয় নাগরিক আটক
Next articleআরআরইউ-র দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি এসএম আব্দুল মুগণী ও সাধারন সম্পাদক আবু হেনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।