আবু বক্কর সিদ্দিক: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের পশ্চিম শ্রীপুর গ্রামের অসহায় পরিবারে প্রভাবশালীরা হামলা চালিয়ে ব্যাপক মারপিটসহ বাড়ন্ত গাছপালা কর্তন করেছেন।

জানা যায়, উক্ত গ্রামের মৃত বিশু মন্ডলের ছেলে ছামছুল আলম (৩৫) জীবিকা নির্বাহের তাগিদে ঢাকায় অবস্থান করেন। তার স্ত্রী লাভলী বেগম সুইটি (৭) ও লতা (৪) নামে দুই মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে থাকেন। সুযোগ বুঝে তার দু:সম্পর্কের মামা প্রতিনিয়তই কু-প্রস্তাব দেন। তা প্রত্যাখান করায় বিভিন্ন সময় মন্টু চাকলাদার তার লোকজনকে দিয়ে চাঁদা দাবি করে থাকেন। এক পর্যায়ে উচ্ছেদের পায়তারা চালান। এ লক্ষ্যে প্রতিনিয়তই লাভলী ও তার সন্তানের উপর ঝগড়া-বিবাদের অছিলায় মারপিট চালান। এরই এক পর্যায়ে সম্প্রতি বসতবাড়িতে হামলা চালিয়ে লাভলী, তার স্বামী ছামছুল ও শিশু মেয়েদেরকে মারপিট করে গাছপালা কর্তন করেন।

এনিয়ে ছামছুল হকের অভিযোগের প্রেক্ষিতে কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের এএসআই আবুল কালাম আজাদ তদন্ত করে ঘটনাস্থল থেকে ফিরতে না ফিরতেই মন্টু চাকলাদার, মুকুল চৌধুরী, মকবুল হোসেনসহ আরও বেশ কিছু লোকজন নিয়ে আবারও ঐ পরিবারে বেপরোয়া হামলা চালিয়ে ছামছুল হককে ঘরে আটকিয়ে জোর পূর্বক বিভিন্ন কাগজে সহি-স্বাক্ষর নিয়ে তা অভিযোগ প্রত্যাহারের ক্ষেত্রে ব্যবহার করেন।

লাভলী বেগমের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে মন্টু চাকলাদার ও মকবুল হোসেনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে পৃথক পৃথকভাবে কথা হলে তারা বলেন বিষয়টি মিমাংসা করা হয়েছে। তদন্তকারী কর্মকর্তা এএসআই আবুল কালাম আজাদ জানান, স্থানীয়ভাবে সালিশ নামার প্রেক্ষিতে অভিযোগ প্রত্যাহার হয়েছে। ফলে আর কোন পদক্ষেপ নেয়া সম্ভব হয়নি।

Previous articleডিমলায় ঝরে পড়া শিশুদের বিদ্যালয়ে ফিরিয়ে আনতে অবহিতকরণ ও সংলাপ
Next articleগোমস্তাপুরে বিলে মাছ ধরা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা দ্বন্দের অবশেষে অবসান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।