বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চট্টগ্রামে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ফাঁসি হওয়া বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বাড়ি গুডস হিল ঘেরাও করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড।

শনিবার সকাল ১০টায় নগরীর চকবাজার গণি বেকারির মোড়ে গুডস হিল বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানরা।

ঘেরাও কর্মসূচি পালনকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও জামালখান ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন যোগ দেন।

এ সময় অবস্থান কর্মসূচি থেকে যুদ্ধাপরাধীদের স্ত্রী-সন্তানদের রাজনীতি নিষিদ্ধ ও সম্পদ বাজেয়াপ্ত দাবি জানানো হয়।

কর্মসূচি পালনকারীরা গুডস হিলের প্রবেশপথে দেয়ালে লিখে দেন, ‘মুক্তিযোদ্ধাদের ওপর নির্যাতন কেন্দ্র-রাজাকারের বাড়ি’।

এ সময় তারা সেখানে প্রতীকী তালাও ঝুলিয়ে দেন। উড়িয়েছেন লাল-সবুজের পতাকা।

বিক্ষোভকারীরা ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায় রাজাকারের ঠাঁই নাই’, মুক্তিযুদ্ধের বাংলায় মৌলবাদীর ঠাঁই নাই’ লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড নিয়ে জড়ো হন সমাবেশস্থলে।

সালাহউদ্দিন কাদেরের ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরীর ‘ঔদ্ধ্যত্যপূর্ণ’ বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে এই ঘেরাও কর্মসূচি পালন করা হয় বলে জানান মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড নেতারা।

জানা গেছে, ১২ অক্টোবর চট্টগ্রাম নগরীর পলোগ্রাউন্ড মাঠে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দলটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য হুম্মাম কাদের চৌধুরী।

বক্তব্যের এক পর্যায়ে তিনি সরকারের উদ্দেশে বলেন, ‘ক্ষমতা ছাড়ার পর একা বাড়ি ফিরতে পারবেন না। সকল শহীদদের কবরে গিয়ে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করা হবে।’

পরে তিনি ‘নারায়ে তাকবির’ স্লোগান দেন। এই বক্তব্যের পর বিক্ষোভ দেখান মুক্তিযোদ্ধা সংগঠন ও পরিবার।

পরে হুম্মাম কাদেরকে বক্তব্যের জন্য ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে গত ১৮ অক্টোবর চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে সমাবেশ করেন মুক্তিযোদ্ধারা।

Previous articleরংপরে বিভাগীয় সমাবেশ চলাকালীন বিএনপি নেতার মৃত্যু
Next articleনুসরাত মামলা পুনঃতদন্ত ও পিবিআই কর্মকর্তা বনজ কুমারের শাস্তির দাবিতে ফের বিক্ষোভ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।