মাহমুদুল হাসান: কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছী ইউনিয়নের কাকডাঙ্গা উত্তর পাড়া ঈদগাহের পার্শ্ববর্তী কবর খননের সময় একটি মর্টার শেল উদ্ধার করেছে বিজিবি। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় কাকডাঙ্গা গ্রামের মৃত নাসিমউদ্দীনের ছেলে কাসেম আলী (৯০) বার্ধক্য জনিত মৃত্যবরণ করেন।

মঙ্গলবার দুপুরে মৃতের কবর খননের সময় খননকারীরা খুড়তে যেয়ে মাটির নিচে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটা মর্টার সেল দেখতে পায়। পরে স্থানীয়রা মর্টারসেলের বিষয়টি কাকডাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পে জানালে বিজিবি মর্টারসেলটি উদ্ধার করেছে বলে দ্বায়িত্বরত কোম্পানি কমান্ডার নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, উদ্ধারকৃত মাইন শেলটি এম-২ এ -৪ এন্টি পার্সোনাল মাইন (পাকিস্তানি ভ্যারিয়েন্ট পি -৭)। ধারণা করা হচ্ছে, মাইনটি ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী কাকডাঙ্গা এলাকায় মাটিতে পেতে রেখেছিলো। র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরা ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর জে এম গালিব হোসাইন খাঁনের নেতৃত্বে র‌্যাব -৬ খুলনার বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিটের সদস্যবৃন্দ মাইন শেলটি নিষ্ক্রিয় করেন।

দীর্ঘদিনের পুরাতন হলেও নিষ্ক্রিয়ের সময় মাইন শেলটি বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়। যা থেকে সহজেই ধারণা করা যায়, শেলটি কতো শক্তিশালী ছিলো। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলারোয়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাহমিনা সুলতানা নীলা, কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন মৃধা, ইউপি চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন হাবিলসহ র‍্যাব, পুলিশ ও বিজিবি’র সদস্যবৃন্দ।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দীন মৃধা জানান, ধারণা করা হচ্ছে মাইন শেলটি ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী রেখে যেতে পারে।

Previous articleটাঙ্গুয়ার হাওরে ফসল রক্ষার নামে উজাড় বনাঞ্চল
Next articleতিন শাসনের স্বাক্ষি হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, ১০৯ বছর পার করেও ‘হার্ডিঞ্জ ব্রিজ’ আজও চির যৌবনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।