সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪
Homeসারাবাংলাসিরাজদিখানে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার উপর হামলা, থানায় মামলা

সিরাজদিখানে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার উপর হামলা, থানায় মামলা

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে ব্যক্তি মালিকানাধীন সম্পত্তির উপর দিয়ে জোরপূর্বক রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে আকবর হাওলাদার ও জামান শাহীন হাওলাদার রতন নামে দুই স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে। পৈত্রিক সম্পত্তিতে জোর পূর্বক রাস্তা নির্মাণে বাধা দেওয়ায় সম্পত্তির মালিক জৈনসার ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সহ-সভাপতি নূর জামান শেখ (৪৪) ও তার ভাই সফিকুল ইসলাম (টিটু শেখ) (৪২) নামে দুই সহোদর সহ পরিবারের লোকজনে উপর অতর্কিত হামলা চালানো হয়েছে মর্মে অভিযোগ করেন, ভুক্তভোগী নূর জামান শেখ।

গত বৃহস্পতিবার সকাল অনুমান ৭ টার দিকে উপজেলার জৈনসার ইউনিয়নের চাইনপাড়া প্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার ভুক্তভোগী নূর জামান শেখ বাদী হয়ে চাইনপাড়া গ্রামের মৃত আলেক হাওলাদারের ছেলে আলী আকবর হাওলাদারকে (৬০) প্রধান আসামীসহ একই গ্রামেন আলী আকবর হাওলাদারের তিন ছেলে সোহেল হাওলাদার (৩২), হাসান হাওলাদার (৩৪) ও আরশাদ হাওলাদার (৩৬), কাঠালতলী গ্রামের নাজিম উদ্দিন শেখের ছেলে সোহেল শেখ (৩৫), চাইনপাড়া গ্রামের খালেক হাওলাদারের দুই ছেলে নয়ন হাওলাদার (২৮) ও সজিব হাওলাদার (২৫), মৃত ছাবেদ মোল্লার দুই ছেলে মোতাহার মোল্লা (৪৫) ও আঃ হাই মোল্লা (৪২), মালেক হাওলাদারের ছেলে রাব্বি হাওলাদার (২২),মৃত আলেক হাওলাদারের দুই ছেলে খালেক হাওলাদার (৫২) ও মালেক হাওলাদার (৪৬), লৌহজং উপজেলার বনসেমন্ত গ্রামের সিরাজ মৃধার ছেলে শাহাদাত (২৩)সহ অজ্ঞাতনামা ৩০/৩৫ জনকে আসামী করে সিরাজদিখান থানায় মামলা দায়ের করেন। যার নং-২৬।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার জৈনসার ইউনিয়নের চাইনপাড়া গ্রামের বাসিন্দা নূর জামান শেখের বাড়ীর পাশ দিয়ে কাবিখা-কাবিটা প্রকল্পের একটি রাস্তা নির্মাণের কাজ সম্প্রতি শুরু করা হয়। অনুমতি না নিয়ে জোরপূর্বক বক্তি মালিকানাধীন সম্পত্তি তথা বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করায় বাড়ির মালিক নূর জামান শেখ বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফুল আলম তানভীরকে অবগত করলে তিনি রাস্তা নির্মাণের কাজ বন্ধ রেখে উভয় পক্ষকে তার কার্যালয়ে বসার নির্দেশ দেন। কিন্তু নির্বাহী অফিসারের নির্দেশ উপেক্ষা করে চাইনপাড়া গ্রামের মৃত আলেক হাওলাদারের ছেলে আলী আকবর হাওলাদারসহ তার লোকজন ভেকু দিয়ে মাটি কেটে রাস্তার কাজ চালিয়ে যায়। এতে বাড়ীর মালিক নূর জামান শেখ রাস্তা নির্মাণে কাজে বাধা দিতে গেলে অভিযুক্ত আকবর হাওলাদারসহ তার সাথে থাকা লোকজন নূর জামান শেখ ও তার ভাই আশরাফুজ্জামান টিটুর উপর হামলা চালায়। নূর জামান শেখ ও তার ভাই সফিকুল ইসলাম টিটু শেখে ডাক চিৎকার শুনে চাচাতো ভাই মেহেদী (২২), গোলাপ শেখ (৫২) মা নুর জাহান বেগম (৭০), চাচি আসমা বেগম (৪০), ছোট ভাইয়ের স্ত্রী বর্না আক্তার (২১)সহ পরিবারের অন্যান্য লোকজন এগিয়ে গেলে তারা তাদেরকেও মারধর করে। পরে স্থানীয় লোকজন গুরুত্বর আহত নূর জামান শেখকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং তার ভাই সফিকুল ইসলাম টিটু শেখকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠায়। এছাড়া পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ভুক্তভোগী জৈনসার ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সহ-সভাপতি নুর জামান শেখ অভিযোগ করে বলেন, রাস্তা নিতে হলে আমাদের সাথে তারা আলোচনা করা কথা। কিন্তু আকবর হাওলাদার আমাদের সাথে কোন আলোচনা না করে বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নেওয়ার জন্য ভেকু দিয়ে মাটি কাটতে গেলে আমি তাদের বাঁধা দেই। বাঁধা দেওয়ার সময় আকবর হাওলাদারসহ তার লোকজন আমি ও আমার ভাইয়ের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। তারা আমার মা, বোন ও ভাবিকেও মারধর করেছে।আমার বাড়ির পাশ দিয়ে জোর পূর্বত রাস্তার নেওয়ার মূল হোতা জামান শাহীন হাওলাদার রতন। সে গোপনে থেকে এসব করিয়েছে। রাস্তাটা জামান শাহীন হাওলাদার রতনের বাড়িতে নেওয়ার জন্য সে মেম্বারকে রাস্তার কাজের সভাপতি বানিয়ে রাস্তার কাজ করাচ্ছে। বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তার জন্য মাটি কাটায় সব মিলিয়ে আমার ৫ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। আমি ইউএনও স্যারকে জানানোর পর তিনি কাজ বন্ধ রাখতে বলেন। কিন্তু তারা তার কথা উপেক্ষা করে কাজ চালিয়ে যায়। আমি এর সুষ্ঠ বিচারসহ ক্ষতিপূরণ চাই। জৈনসার ৭ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মনির হোসেন শহিদ মোল্লা বলেন, আমি এই রাস্তার কাজের কাগজ-কলমের সভাপতি, এই কাজের কোন কিছুই আমি জানি না। তবে গত তিন থেকে চার মাস আগে আমি দুই পক্ষকে নিয়ে বসেছিলাম, কিন্তু জমির মালিক জায়গা দিতে রাজি হয়নি। এরপর হয়তো জোরপূর্বক ভাবে রাস্তা নির্মাণ শুরু হয়েছে। আমি এই কাজের কিছুই জানিনা। জৈনসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম দুদু বলেন, এমপি সাহেব রাস্তাটির বরাদ্দের ব্যপারে আমাদের জানান নি। যদি তিনি আমাদের জানাতেন তাহলে আমরা এই রাস্তাটি খাস জায়গার উপর দিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করতাম। ব্যক্তি মালিকানাধীন জায়গার উপর দিয়ে রাস্তা করা যাবে না। রাস্তা নিয়ে যেহেতু মারামারি হয়েছে বিষয়টি আমি দেখবো।

এ ব্যপারে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি। সিরাজদিখান থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আজগর হোসেন বলেন, ব্যক্তি মালিকানা সম্পত্তির উপর জোরপূর্বক রাস্তা নির্মাণে বাধা দেওয়ায় হামলার ঘটনায় ভুক্তভোগী নূর জামান শেখ বাদী হয়ে আলী আকবর হাওলাদারকে প্রধান আসামী করে অজ্ঞাতনামা ৩০-৩৫ জনকে আসামী করে সিরাজদিখান থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আসামী গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments