সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪
Homeসারাবাংলাকোরবানীর পশুর হাটে চড়া দামের কারণে বিক্রি কম

কোরবানীর পশুর হাটে চড়া দামের কারণে বিক্রি কম

স্বপন কুমার কুন্ডু: কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে উত্তরাঞ্চলের অন্যতম বৃহত্তম ঈশ্বরদী অরোনকোলা পশুর হাট ও পাবনার হাজির হাটসহ ছোটো-বড় পশুর হাটগুলোতে কম-বেশি গরু-ছাগল উঠতে শুরু হয়েছে । ঈদকে টার্গেট করে মঙ্গলবার (১৩ জুন) অরোনকোলা হাট আমদানি হয় ছোট-বড় দেশি কয়েক প্রজাতির গরু। স্থানীয় খামারি ও ব্যবসায়ীরাও হাটে নিয়ে আসছেন তাদের গরু। তবে আমদানি বেশি হলেও চড়া দামের কারণে বিক্রি কম হচ্ছে। গো-খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় কোরবানির আগই গরুর দাম চড়া হয়েছে বলে জানান বিক্রেতারা।

বিক্রেতারা বলছেন, সরিষার খৈল, ছোলার ভুষি, খেসারি, মাসকালাইয়ের ভুষি, ধানের গুঁড়াসহ অন্য সব গো-খাদ্যের দাম গত বছরের তুলনায় বেড়ে হয়েছে দ্বিগুন। লাফিয়ে লাফিয়ে গো-খাদ্যের দাম বাড়ার কারনে এবারে গবাদি পশু পালন ব্যয়বহুল ছিল। হাটে ক্রেতারা যে দাম বলছেন খামারিদের কাছে তা খুবই কম। ক্রেতারাও বলছেন, এবারে পশুর দাম একটু বেশিই।

মঙ্গলবার(১৩ জুন) সরেজমিনে অরনকোলা পশুর হাট ঘুরে দেখা যায়, ছোট-বড় ষাঁড়, বকনা গরু ও শাহিওয়াল জাতের গরুতে পরিপূর্ণ হাট। ক্রেতা-বিক্রেতার সমাগমও বিপুল। হাটে পশুর আমদানিও হয়েছে প্রচুর। তবে বড় সাইজের পশুর দাম অনুযায়ী ছোটগুলোর দাম একটু বেশি। সাধারণ ক্রেতাদের ছোট গরুই বেশি পছন্দ করতে দেখা গেছে। ৬০ হাজার থেকে ১০ লাখ টাকা দামের গরুও প্রথম দিনের এই হাটে উঠে ।

অরোনকোলার আইয়ুব আলী ডেইরি খামারের স্বত্তাধিকারী জীবন হোসেন বলেন, কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে আমার খামারে ছোট-বড় ৫০ টি গরু পালন করেছি। আজকের হাটে ১০ টি গরু নিয়ে এসেছি। ক্রেতাদের সমাগম মোটামুটি থাকলেও বিক্রির অবস্থা খুবই খারাপ। গো-খাদ্যের দাম বাড়ায় গরু পালনে বিপুল ব্যয় হচ্ছে। প্রায় ২ মাস আগে থেকেই গরুর দাম বাড়তি। দাম বাড়তির কারনেই বিক্রি কম হচ্ছে। আশা করছি সামনে হাটে বেচাকেনা একটু ভালো হবে।

সরাবাড়ি এলাকার আকুল হোসেন বলেন, আমার বাড়িতে পোষা ২টি গরু হাটে নিয়ে এসেছি। কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে আজ থেকে জমতে শুরু করেছে এ হাট। হাটে ক্রেতা থাকলেও বেচাকেনা তেমন হচ্ছে না। যারা এসেছেন তারা যে দাম বলেন, সেটাকায় পশু পালনের খরচও উঠবে না, লাভ তো দূরের কথা।

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা থেকে গরু কিনতে আসা সাইফুল ইসলাম জানান, উত্তরাঞ্চলের অন্যতম পশুর হাট অরনকোলা। প্রত্যেক বছর বেশ কয়েকটা হাট ঘুরে ঘুরে গরু ক্রয় করি। ঈদকে টার্গেট করে আজকে অরনকোলা পশুর হাটে দেশি জাতের ছোট-বড় গরু আমদানি শুরু হয়েছে। মুলত: হাটের পরিস্থিতি দেখার উদ্দেশ্যেই এসেছি। হাটে গরুর আমদানি প্রচুর, তবে দাম অনেক চড়া। এক মনের দাম ৩৫ হাজার টাকা আইডিয়া করে গরু কিনতে হবে।

স্থানীয় ক্রেতা আরিফ বিশ্বাস বলেন, এ হাটে গরুর দাম এতই চড়া যে বাজেট ফেল হয়ে যাচ্ছে। গত বছরও তুলনামুলক কম ছিল দাম। হাট ঘুরে যা বুঝলাম এ বছর আমাদের মত মধ্যবিত্তদের কোরবানির পশু কেনা কঠিন হয়ে যাবে। তিন মন ওজনের একটি গরুর দাম এক লাখ টাকা হাঁকছেন বিক্রেতারা। সামনে হাটগুলো জমজমাট হলে আশা করছি দাম একটু কমতেও পারে।

অরনকোলা হাটের ইজারাদার রুনু মন্ডল জানান, উত্তরাঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী পশুর হাট আমাদের অরনকোলা। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এখানে ক্রেতা-বিক্রেতার সমাগম হয়। কোরবানীকে সামনে রেখে হাটে গরু আমদানি হয়েছে প্রচুর। অনলাইনেও খামারিরা বিক্রি করছেন। সামনের হাটে বিপুল গরু আমদানি হবে। তবে বাড়তি দামের কারনে বেচাকেনা একটু কম হচ্ছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments