রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাভোটকেন্দ্রে জোরপূর্বক প্রবেশ করে জাল ভোট দেওয়ার অপরাধে মিঠাপুকুরে আটক ২

ভোটকেন্দ্রে জোরপূর্বক প্রবেশ করে জাল ভোট দেওয়ার অপরাধে মিঠাপুকুরে আটক ২

জয়নাল আবেদীন: রংপুরের মিঠাপুকুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে জোরপূর্বক প্রবেশ করে জাল ভোট দেওয়ার অপরাধে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে শঠিবাড়ি কলেজ ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। আটক দুজন হলেন- রুমান মিয়া ও বাদশা মিয়া । তারা উপজেলার শঠিবাড়ি দূর্গাপুর গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শঠিবাড়ি কলেজ ভোটকেন্দ্রে মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে ৭-৮ জন যুবক ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ব্যালট পেপার কেড়ে নিয়ে সিল মারার চেষ্টা করে। এ সময় দুইজনকে আটক করলে বাকিরা পালিয়ে যায়।পুলিশ জানায়, সকাল পৌনে ১০টার দিকে চেয়ারম্যানপ্রার্থী কামরুজ্জামান কামুর (হেলিকপ্টার) পক্ষে ৭-৮ জন যুবক শঠিবাড়ি ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করে। এ সময় পুলিশ বাধা দিলে তারা অশোভন আচরণ করেন। এরপর ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ব্যালট পেপারের একটি বান্ডিল কেড়ে নিয়ে হেলিকপ্টার প্রতীকে সিল দিতে থাকে।

এ ঘটনায় কর্তব্যরত পোলিং অফিসার, প্রিজাইডিং অফিসার ও পুলিশ সদস্যরা ওই ভোটকেন্দ্রে এসে দুইজনকে আটক করলে বাকিরা দ্রæত ভোটকেন্দ্র থেকে সটকে পড়ে।মিঠাপুকুর থানা পুলিশের ওসি ফেরদৌস ওয়াহিদ দুজনকে আটক করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আটকদের ব্যাপারে সহকারী রিটানিং অফিসারসহ ভ্রাম্যমাণ ম্যাজিস্ট্রেট আলোচনা করে ব্যবস্থা নেবেন।রংপুরের মিঠাপুকুর ও পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ১৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মিঠাপুকুর উপজেলায় মোট ভোটার ৪ লাখ ৪০ হাজার ৩৩৫ জন। এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে তিনজন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুইজন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুইজন প্রতিন্ধিতা করছেন।চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কামরুজ্জামান কামরু, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোতাহার হোসেন মন্ডল মাওলা ও সাবেক এমপি শাহ সোলায়মান আলমের ছেলে সাদমান ইশরাক প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন।

অপরদিকে পীরগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে তিনজন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ উপজেলায় এবার মোট ভোটার ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৯৭২ জন।তিনজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে দুজন আওয়ামী লীগের ও একজন জাতীয় পার্টির। তারা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য নুর মোহাম্মদ মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোকাররম হোসেন চৌধুরী জাহাঙ্গীর এবং জাতীয় পার্টির উপজেলা সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম যাদু মিয়া।এদিকে সকাল থেকে ভোটকেন্দ্রগুলোতে তেমন ভোটার উপস্থিতি দেখা যায়নি। অনেক ভোটারই ধান কাটা ও মাড়াই নিয়ে ব্যস্ত বলে দাবি করেছেন মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা মোতাহার হোসেন মন্ডল মাওলা ও কামরুজ্জামান কামরু। তবে নেতাকর্মী ও সমর্থকরা ভোটারদের কেন্দ্রে আনতে কাজ করছেন বলে তারা জানান।

এদিকে পীরগঞ্জের প্রার্থী নূর মোহাম্মদ মন্ডল বলেন, ১০ বছর সংসদ সদস্য এবং ১০ বছর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছি। সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি মানুষের সেবা করার। আশাবাদী জনগণ আমাকে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী করবে।নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা হাসিবুল হাসান রুমি জানান, দুই উপজেলায় রয়েছে তিন স্তরের নিরাপত্তা। কেন্দ্রে কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসার বাহিনী নিয়োজিত করার পাশাপাশি ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত এবং র‌্যাব ও বিজিবির টহল রয়েছে। তবে নির্বাচনের ফলাফলের পর বড় ধরণের সহিংস ঘটনার আশংকা থাকলেও নির্বাচন চলাকালীন কোন সহিংস ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি ।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments