বাংলাদেশ প্রতিবেদক: শিক্ষার্থীদের বাড়িতে গিয়ে ঈদের ছুটি কাটানোর পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক এ টি এম মইনুল হোসেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিক অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বুধবার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার একপর্যায়ে তিনি এ কথা বলেন।

এ টি এম মইনুল হোসেন বলেন, ব্যবসায়ীরা দোকান খোলার বিষয়ে এককভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমাদের সাথে কোনো রকম আলোচনা করা হয় নাই। আলোচনা ছাড়া এভাবে দোকান খোলার সিদ্ধান্ত যৌক্তিক মনে করছি না।

তিনি আরো বলেন, সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত পুলিশের ভূমিকাও ছিল প্রশ্নবিদ্ধ। তবে এর পরিপ্রেক্ষিতে কলেজ প্রশাসন এখন পর্যন্ত আইনি কোনো পদক্ষেপ নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়নি। এই বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেছেন আপনারা তাদের সাথে কোনো যোগাযোগ করেননি, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে এ টি এম মইনুল হোসেন বলেন, সংঘর্ষের দিন আমরা তাদের সাথে দেখা করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু তাদের আক্রমণের মুখে আর সামনে যেতে পারিনি।

জানা যায়, শিক্ষকদের একাংশ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করার অনুমতি চাইলে অধ্যক্ষের পক্ষ থেকে দেয়া হয়নি।

শিক্ষকরা বলেন, মূলত ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া শিক্ষকদের কিছু করার সুযোগ নেই। আমরা এমন হামলার প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এর আগে বুধবার দুপুরে নিউমার্কেটে ব্যবসায়ী ও ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষের ঘটনার সঠিক তদন্ত ও শান্তিপূর্ণ সমাধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করে নিউমার্কেট দোকানমালিক সমিতির সদস্যরা। এ সময় নিউমার্কেটের দোকান খোলা হবে বলে ঘোষণা দেন নিউমার্কেট দোকানমালিক সমিতির সভাপতি ডা: দেওয়ান আমিনুল ইসলাম শাহীন।

এরপর থেকে ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করে গাউছিয়া মার্কেটসহ নিউমার্কেট এলাকার দোকান।

Previous articleহাতে-পায়ে গ্লাভস না দিয়েই তৈরি হচ্ছিল সেমাই, বাজার মনিটরিং অভিযানে জরিমানা
Next articleবিএনপি নেতাদের মুখে গণতন্ত্রের কথায় মানুষ হাসে: তথ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।