কাগজ ডেস্ক: কাশ্মীরের রাজৌরি জেলার লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি) বুধবার ভারত ও পাকিস্তানের সেনাদের মধ্যে ফের ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। ভারতের প্রতিরক্ষা দফতরের কর্মকর্তারা দাবি করছেন, এ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় তিনবার সীমান্ত চুক্তি লংঘন করলো পাকিস্তান।

ভারতের প্রতিরক্ষা দফতরের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘বুধবার আনুমানিক সকাল সাড়ে দশটায় সীমান্তের ওপারে থাকা সেনারা ভারতের নওশেরা ও সুন্দেরবানি সেক্টরের সেনাবাহিনীর ঘাঁটি লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ শুরু করে। সীমান্ত চুক্তি লংঘন করায় ভারতীয় সেনারাও এমন হামলার জবাব দিয়েছে।’

তাছাড়া গত মঙ্গলবার কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার কৃষ্ণঘাঁটি ও রাজৌরি জেলার নওশেরাতে দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। দুই পক্ষের ওই পাল্টাপাল্টি গোলাগুলিতে রাজৌরির কালা নামক স্থানে ভারতীয় এক সেনা আহত হয়েছেন বলেও জানানো হয়।

গত মঙ্গলবার সুন্দেরবেরিতে দুই পক্ষের মধ্যে যে পাল্টাপাল্টি গোলাবর্ষণ শুরু হয় তা রাত সাড়ে দশটা থেকে ভোর সাড়ে চারটা পর্যন্ত চলে। কর্তৃপক্ষ ওই দুই জেলার সীমান্তের পাঁচ কিলোমিটারের ভেতরে থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ করে দিয়েছে।

অপরদিকে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র বলছেন, ‘নয়াদিল্লি নিয়মিতই সীমান্ত আইন লংঘন করছে। তাদের সেনাদের এমন গোলাবর্ষণের ঘটনা চলতে থাকলে পাকিস্তানও ভারতীয় হামলার জবাব দিতে প্রস্তুত আছে।’