আফগানিস্তানে গাড়িবোমা বিস্ফোরণে নিহত ১৭

বাংলাদেশ ডেস্ক: আফগানিস্তানের লোগার প্রদেশে শক্তিশালী একটি গাড়ি বোমার বিস্ফোরণে অন্তত ১৭ জন নিহত হয়েছে বলে দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ঈদ উপলক্ষে তালেবান বিদ্রোহীদের ঘোষণা করা যুদ্ধবিরতি শুরু হওয়ার আগে আগে এ হামলা হল।

তালেবানরা বৃহস্পতিবারের এ হামলার দায় অস্বীকার করেছে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

লোগারের গভর্নরের মুখপাত্র দিদার লাওয়াং জানান, আত্মঘাতী এক হামলাকারীই এ বিস্ফোরণটি ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গভর্নর কার্যালয়ের কাছে এমন এক স্থানে গাড়িবোমাটি বিস্ফোরিত হয়েছে যেখানে অসংখ্য মানুষ ঈদ উপলক্ষে কেনাকাটা করছিলেন।

“সন্ত্রাসীরা ফের ঈদুল আজহার রাতে আঘাত হানল এবং আমাদের দেশের কিছু মানুষকে হত্যা করল,” বলেছেন আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তারিক আরিয়ান।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, বৃহস্পতিবারের হামলার সঙ্গে তাদের কোনো ধরনের সম্পৃক্ততা নেই।

লোগারে গাড়িবোমা হামলা প্রসঙ্গে আফগানিস্তানে ক্রমেই শক্তিশালী হয়ে ওঠা জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

বিবিসি জানিয়েছে, আফগান সরকার ও তালেবান বিদ্রোহীরা ঈদ উপলক্ষে যে তিনদিনের যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে, শুক্রবার থেকে তা শুরু হওয়ার কথা।

বিবদমান এ দুই পক্ষের মধ্যে স্থায়ী একটি যুদ্ধবিরতির সম্ভাবনা থাকলেও বন্দি বিনিময় নিয়ে মতপার্থক্যের কারণে শান্তি আলোচনা শুরু করা যাচ্ছে না।

তালেবানদের হাতে বন্দি এক হাজার নিরাপত্তা কর্মীর বিনিময়ে আফগান সরকার বিদ্রোহী গোষ্ঠীটির ৫ হাজার সদস্যকে ছেড়ে দিতে রাজি হয়েছিল।

আফগানিস্তানের সরকার এরই মধ্যে চার হাজার ৪০০র বেশি তালেবান বন্দিকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করলেও বৃহস্পতিবার বিদ্রোহীদের এক মুখপাত্র বলেছেন, তাদের হিসাবে এখন পর্যন্ত মাত্র সরকারের হাতে আটক মাত্র এক হাজার ৫ জন কয়েদিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।