বাংলাদেশ ডেস্ক: ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধ ও হাউথিদের সন্ত্রাসী তালিকা থেকে বাদ দিতে বাইডেন প্রশাসনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে হাউথি সরকার। আর যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তকে ভুল শোধরানোর প্রথম পদক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছে ইরান। এরই মধ্যেই বিষয়টি নিয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ক্ষমতাগ্রহণের পর থেকে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত সব সিদ্ধান্ত বাতিল করছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ইয়েমেন ইস্যু। গত সপ্তাহে ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধে সৌদির প্রতি আহ্বান জানান বাইডেন। একই সঙ্গে হাউথিদের সন্ত্রাসী তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার পরিকল্পনাও করছে তার প্রশাসন।

শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বাইডেনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে হাউথি সরকার। তাদের দাবি, ইয়েমেনে যুদ্ধ নয় শান্তি চায় তারা।

হাউথি সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসাম শরীফ বলেন, ইয়েমেন ও সানা কোনো সন্ত্রাসীদের আস্তানা নয়। সানা হলো শান্তির জায়গা। বিষয়টি তারা বুঝতে পেরেছে বিধায় তাদের এই সিদ্ধান্ত ধন্যবাদযোগ্য। পুরো বিশ্বের কাছে এখন পরিষ্কার যে হাউথি কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী নয়।

ইয়েমেনের চলমান যুদ্ধে সৌদি আরবের ওপর থেকে সমর্থন তুলে নেওয়ায় বাইডেন প্রশাসনের প্রশংসা করেছে ইরান। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ইয়েমেনের মতোই নিজেদের সব ভুল সিদ্ধান্ত থেকে বেরিয়ে আসবে যুক্তরাষ্ট্র।

এরই মধ্যে, ইয়েমেনে মানবিক উন্নয়নের জন্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যে পদক্ষেপ নিতে চায় তা নিয়ে সৌদি আরবকে অবহিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। শনিবার এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে প্রথম ফোনালাপে ইয়েমেন ইস্যুকে গুরুত্ব দেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।