বাংলাদেশ ডেস্ক: মালয়েশিয়ায় বন্যায় বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৩৭ জনের প্রাণহানী হয়েছে। এছাড়া বন্যায় নিখোঁজ রয়েছেন ১০ জন।

বৃহ্স্পতিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কথা জানান দেশটির পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) আক্রিল সানি আবদুল্লাহ সানি।

সংবাদ সম্মেলনে আইজিপি বলেন, বন্যাকবলিত এলাকায় চুরি ও লুটপাটের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তিনি ক্ষতিগ্রস্তদেরকে এই ধরনের কার্যকলাপে অবলম্বন না করে অস্থায়ী ত্রাণ কেন্দ্রে (পিপিএস) আশ্রয় নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সেখানে খাবার এবং সাহায্য পাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে খাবারের অভাবে একটি সুপারশপ থেকে পণ্যসামগ্রী লুটপাটের অভিযোগে ৩১ জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এর আগে শনিবার মাত্র ২৪ ঘণ্টার বৃষ্টিতে জলবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে মালয়েশিয়ার ১৩টি রাজ্যে মোট নয়টি রাজ্য বন্যায় প্লাবিত হয়। বন্যা উপদ্রুত রাজ্যগুলো হচ্ছে পেরাক, সেলাঙ্গর, তেরেঙ্গানু, নেগ্রি সেম্বিলান, মেলাকা, পাহাং, কেলান্তান, জহুর বারু ও পেনাং।

বন্যায় উপদ্বীপ জুড়ে ১৮ হাজার ৮০টি পরিবারের ৬৮ হাজার ৩৪১ জন লোক গৃহহীন হয়েছে। বর্তমানে বন্যা মোকাবিলায় বিভিন্ন সংস্থার ৬৬ হাজার কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। সরকার বন্যা দুর্গতদের জরুরি চিকিৎসা ও খাদ্য সহায়তার জন্য অসংখ্যা অস্থায়ী ত্রাণকেন্দ্র (পিপিএস) এবং সেনাবাহিনী মোতায়েন করেছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত রাজধানী কুয়ালালামপুরকে ঘিরে রাখা সেলেঙ্গর রাজ্যসহ তিন রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। বাকি ছয় প্রদেশে বন্যা পরিস্থিতি এখনো অপরিবর্তিত আছে।

Previous articleগাজীপুরের বাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা
Next articleশার্শায় সন্তান জন্মদানের ৬ ঘন্টা পর এইসএসসি পরীক্ষায় বসলেন ফাতেমা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।