বাংলাদেশ ডেস্ক: বছরের প্রথম দিনে ভারতের হরিয়ানার ভিওয়ানিতে ঘটলো ভয়ঙ্কর খনি দুর্ঘটনা। খনিতে ধসের কারণে বহু শ্রমিকের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

তোশাম ব্লকের দাদম খনি এলাকায় শনিবার এ ধস নামে। জেলা প্রশাসন উদ্ধারকাজ শুরু করেছে। মাটির তলায় কতজন জীবিত রয়েছেন বা কতজন মৃত সেই সংখ্যা এখনো জানা যায়নি।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে তোশামের বিধায়ক কিরণ চৌধুরি বলেছেন, ‘কতজন আটকে রয়েছেন তা এখনো জানা যায়নি। অন্তত ৪-৫ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে। কিন্তু ঘটনাস্থল থেকে যা তথ্য পাচ্ছি, তাতে মনে হচ্ছে সংখ্যাটা আরো বাড়বে। এই এলাকায় খননকার্য নিষিদ্ধ ছিল জাতীয় পরিবেশ আদালতের নির্দেশে।’

তিনি আরো বলেছেন, ‘জেলা প্রশাসনেরও গাফিলতি রয়েছে। অনেক দেরিতে উদ্ধারকাজ শুরু করেছে প্রশাসন। আমি স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে জানতে পারলাম প্রশাসনিক কর্মকর্তারা অনেক দেরিতে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। ওই এলাকায় খনিতে খোঁড়াখুঁড়ি রাজ্য সরকারের নির্দেশিকা মেনে হয়নি। তাই এধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছে।’

রাজ্যের মন্ত্রী জে পি দালাল ঘটনাস্থলে গিয়ে জানান, কিছু মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান। তিনজন জখম অবস্থায় উদ্ধার হয়েছেন, তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় খনির ঠিকাদারদের দাবি, মাটির নিচে তিন-চারজন আটকে রয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, ‘ঘটনাস্থলে চিকিৎসক দল পৌঁছেছে। আমরা সবরকম চেষ্টা করছি যাতে সবার প্রাণ বাঁচানো যায়। গোটা জেলা প্রশাসন এবং বাকি সবরকম কর্তৃপক্ষ বিপর্যয় মোকাবেলা বাহিনীর সাহায্যে উদ্ধারকাজ করছে। একমাত্র উদ্দেশ্য বেশি সংখ্যক মানুষের প্রাণ বাঁচানো। ধ্বংসস্তূপ থেকে দ্রুত গতিতে সবাইকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।’

সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Previous articleসাঁথিয়ায় বিনামূল্যে বই বিতরণ উৎসব পালিত
Next articleইন্দুরকানীতে নতুন বই পায়নি শিক্ষার্থীরা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।