বাংলাদেশ ডেস্ক: সার্স-কোভ-২-এর নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন প্রথম শনাক্ত হয় দক্ষিণ আফ্রিকায়। আর তারপর থেকেই বিশ্ব জুড়ে টি-২০ ক্রিকেটের স্লগ ওভারের মেজাজে ব্যাটিং করে করোনার এই নতুন প্রজাতি।

ওমিক্রনের ছড়িয়ে পড়ার গতি আগের সব ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে অনেকটাই বেশি। এর আগে ডেল্টা বা অন্য ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে কাশি বা হাঁচির সময় শরীর থেকে বেরিয়ে আসা ড্রপলেটের মাধ্যমে সংক্রমণ ছড়াত। কিন্তু ওমিক্রনের ক্ষেত্রে সামান্য নিঃশ্বাসই মানুষকে সংক্রমিত করতে যথেষ্ট। এরকমই দাবি সম্প্রতি করেছেন একজন গবেষক।

নিউ এন্ড ইমার্জিং রেসপিরেটরি ভাইরাস থ্রেটস অ্যাডভাইজরি গ্রুপের অধ্যাপক পিটার ওপেনশ-এর মতে, ব্রিটেনে প্রায় ৯০ শতাংশ করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে ওমিক্রন একাই দায়ী। সেই সাথে তিনি জানিয়েছেন, শিগগিরই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টকে ছাড়িয়ে যাবে ওমিক্রন।

এদিকে, বিভিন্ন গবেষণায় ওমিক্রনকে হালকা উপসর্গের কারণ বলে দাবি করা হয়েছে। সেই সাথে বলা হয়েছে এটি আগের ভ্যারিয়েন্টগুলোর মতো ঘাতকও নয়। ব্রিটেনের একটি অফিসিয়াল রিপোর্ট অনুযায়ী, ওমিক্রনের আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ঝুঁকি অন্য কোভিড-১৯-এর অন্য প্রজাতিগুলোর তুলনায় ৫০ থেকে ৭০ শতাংশ কম।

ড. পিটার বিবিসির একটি প্রোগ্রামে ওমিক্রনকে অত্যন্ত সংক্রামক বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা খুব ভাগ্যবান যে প্রাথমিকভাবে ভাইরাসটি খুব বেশি সংক্রামক ছিল না। আমরা এই ভাইরাসটিকে বিভিন্ন পর্যায়ে পরিবর্তিত হতে দেখেছি।’

সেই সাথে তিনি বলেন, ‘এখন ভাইরাসটি এতটাই সংক্রামক হয়ে উঠেছে যে এটি একজন সংক্রমিত ব্যক্তির নিঃশ্বাসেই ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং যে কেউ সহজেই এর শিকার হতে পারে। এই অবস্থায় জনগণের আরো সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।’

Previous articleদাপুটে ব্যাটিংয়ের দিনে সেঞ্চুরি মিসের আক্ষেপ
Next articleপিকনিক থেকে ফেরার পথে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।