বাংলাদেশ ডেস্ক: পিকনিক থেকে ফেরার পথে এক গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে একদল যুবক। পুলিশের কাছে এমন অভিযোগ করেছে ওই গৃহবধূর পরিবার। অভিযোগের পর ৬ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত ১ জানুয়ারি নতুন বছরের রাতে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনায় মিনাখাঁর আমতলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূকে সেখানে একটি মাছ চাষের বেড়িতে নিয়ে গণধর্ষণ করে ওই যুবকরা।

পুলিশ জানিয়েছে, ভাঙরের ঘটকপুকুর এবং মিনাখাঁর কুমারজোল থেকে দুইটি দল পিকনিক করতে টাকি গিয়েছিল। সেখানে দুই দলের মধ্যে ঝামেলা হয়। হাতাহাতি হয়। স্থানীয় মানুষদের হস্তক্ষেপে তা সাময়িকভাবে মিটে যায়।

পিকনিক থেকে ফেরার সময়, দুই দলের বাসচালকের মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়। কুমারজোলের পিকনিক দলের বাসের কাচ ভেঙে দেয়া হয়। কুমারজোলের পিকনিক দলটি মিনাখাঁয় কলকাতা-বাসন্তী হাইওয়েতে দাঁড়িয়েছিল। ভাঙরের পিকনিক দলের বাস সেখানে এলে তারা বাসটি দাঁড় করান। এ সময় লোহার রড, বাঁশ ইত্যাদি নিয়ে যাত্রীদের উপর চড়াও হন তারা। তখন ওই নারী ও একজন পুরুষ ছাড়া বাকি সবাই পালিয়ে যান।

যুবকরা ওই দুইজনকে গাড়িতে তুলে নেয়। পরে পুরুষ লোকটিকে মারধর করে রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে ওই নারীকে মাছের বেড়িতে নিয়ে যায় ও দুইজন তাকে ধর্ষণ করে। বাকিরা তাদের উৎসাহ দেয় বলে অভিযোগ।

পরে পুলিশের কাছে গিয়ে অভিযোগ জানান ওই নারী। পুলিশি পরে অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে।

মিনাখাঁর এসডিপিও নির্মল দাস বলেন, কুমারজোল গ্রামের সালাম সর্দার, হাবিবুল্লাহ মোল্লা, সরিফুল গাজি, সুরজিৎ মণ্ডল এবং মাড়িবেড়িয়ার রফিকুল ইসলাম মল্লিক ও কাদিরহাটির বাকিবিল্লা তরফদারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, মারধর, ভাঙচুরের অভিযোগ রয়েছে। তাদের ১২ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। ওই নারীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সূত্র : ডয়চে ভেলে

Previous articleনিঃশ্বাসে ছড়াচ্ছে ওমিক্রন: সতর্কবাণী গবেষকের
Next articleমুন্সীগঞ্জে টঙ্গীবাড়ীর বা‌ঘিয়া বাজার থেকে কা‌লিবাড়ী রাস্তার বেহাল দশা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।