ঝিমানো পৃথিবী – আবদুল হাকিম

হে ভাবভান্ডার, ঝিমানো আঁধারে, কি দিলে আমায়?
কি দেখালে আমায়!
না কিছু নিতে পারি, না কিছু দিতে পারি,
না কিছু হয়, না কিছু রয়।
এমন বিরানভূমি, এমন অসারভূমি,
না শিখতে পারি, না শিখাতে পারি!
বহুকাল পূর্বেই অভিধান থেকে কেঁদে কেঁদে, বেঁকে বেঁকে,
আগ্রহ আর সম্মান, এই শব্দ দুটি পালিয়েছে দূরে।
জাগার কথা ভোরে, জাগেনি কভু
ক্ষণের ক্ষণ হয় বর্ষণ, হয় কর্ষণ।
ভিজে মাটি, ভিজে আঁখি, ভিজে পার্থনার হাত,
তবুও মানুষ চলে সুরে সুরে, চলে দূরে দূরে,
সদারহে অশান্ত বিনা বসন্তকে,
ফুলের ঘ্রাণকে বলে ননর্থ।
বোবায় বলে ছন্দ, আধারে উত্তপ্ত, আলোতে শীতল,
গরম থাকে দরজার হাতল।
কে আসে! কে যায়! শুধু কথার বোমা ফাটায়।
সাগর মরুভূমি হয়, মরুভূমি সাগর হয়।
আলোতে থেকে হয় রানী, আধারে থাকে টাকার ঝনঝনানি।
হেসে হেসে ঘুরে নিশাচর প্রাণে,
হলুদ আঁখি, প্রেমহীন ভালোবাসা মাতামাতি।
গানের সুরে বধু আর সাঁজেনা।
শিশু হাসেনা মাতৃক্রোড়ে, ছেড়া বাঁধনে বাঁধা,
বৃষ্টিতে ছড়ায় শুধু কাদা।
সবকিছু রান্দ্রা, সবকিছু ভাঙা।
কি বা আছে, কি বা দিবে
হতাশায় আর বিভাজনে বলতে হয়-
আহা! মরি মরি।

Previous articleআমরা কারো ক্রীতদাস হয়ে রাজনীতি করবো না: জিএম কাদের
Next articleবাইডেন প্রশাসনের পররাষ্ট্রনীতি: জন কিরবি’র ব্রিফিং এবং সরকার বিরোধীদের অপপ্রচার প্রসঙ্গে
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।