স্বপন কুমার কুন্ডু: রেলমন্ত্রীর ২ শ্যালকসহ তিনজনের টিকিট কেটে ভাড়া আদায়ের ঘটনায় চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন টিটিই শফিকুল ইসলাম। টিটিই’র বিরুদ্ধে অভিযোগ যাত্রীর সাথে অশোভন আচরণের। এদিকে শনিবার (৭ মে) বিনা টিকিটে ট্রেনে ভ্রমণ করা যাত্রীরা রেলমন্ত্রীর আত্মীয় নন বলে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী দাবি করেছেন। মন্ত্রী বলেছেন,ওদের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। নাম ভাঙিয়ে কেউ হয়তো সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ৫ মে খুলনা থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে ওই তিন যাত্রীর মধ্যে ২ জন রেলমন্ত্রীর মামা শ্বশুরের দুই ছেলে এবং পাশের বাড়ির আরো একজন ছিলেন। যারা বিনা টিকিটে এসি কেবিনে অবস্থান করছিলেন। টিটিই শফিকুল ইসলাম পাকশী বিভাগীয় রেলের সহকারী বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (এসিও) নুরুল আলমের পরামর্শে এসি কেবিনের টিকিটের পরিবর্তে মোট ১ হাজার ৫০ টাকা সুলভ শ্রেণির ভাড়া নিয়ে টিকিট বানিয়ে দিলে রোষাণলে পড়েন।

জানা যায়, রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজনের দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী শাম্মি আকতার মণির মামার বাড়ি ঈশ্বরদী শহরের নূরমহল্লা এলাকায়। ওই ট্রেনের এসি কেবিনে রেলমন্ত্রীর স্ত্রীর মামা মরহুম আব্দুর রহমানের ছেলে ওমর (১৮) এবং আরেক মামা মরহুম জাহাঙ্গির হোসেনের ছেলে হাসান (১৭) এবং পাশের বাড়ির ইমরুল কায়েস প্রান্ত (২৬) বিনা টিকিটে অবস্থান করছিলেন। ওমর ও হাসান দুজনেই ছাত্র এবং প্রান্ত ঢাকায় একটি টেকসটাইল ফার্মে নতুন চাকরি পেয়েছেন।

এবিষয়ে ঢাকায় বেসরকারি টেক্সটাইল ফার্মে চাকুরিরত ইমরুল কায়েস প্রান্ত লিখিতভাবে টিটিই শফিকুলের বিরুদ্ধে অনৈতিকভাবে টিকিট না দিয়ে ৫০০ টাকা করে তিনজনের এক হাজার পাঁচ শত টাকা গ্রহনের অভিযোগে করেছেন। টিকিট দাবি করলে টিটিই শফিকুল খুলনা হতে জনপ্রতি এক হাজার দুই শত টাকা করে মোট তিন হাজার ছয়শত টাকা ভাড়ার দাবী করেন বলে জানান তিনি। প্রান্ত আরও অভিযোগ করেন, টিটিই অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ এবং লাথি মেরে ট্রেন থেকে ফেলে দেওয়ারও হুমকি দেন। কাউন্টারে টিকিট না পাওয়ায় তাড়াহুরো করে এসি কেবিনে উঠে পড়েন বলে প্রান্ত দাবি করেছেন।

প্রসঙ্গত, রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজনের আত্মীয় পরিচয়ে বিনা টিকিটে ভ্রমণকারী তিন ট্রেনযাত্রীকে জরিমানা করায় ওই ট্রেনের ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরীককে (টিটিই) সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। গত ৫ মে রাতে খুলনা থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে এ ঘটনা ঘটে। বরখাস্ত হওয়া টিটিই মো. শফিকুল ইসলাম রেলওয়ে জংশন ঈশ্বরদীর টিটিই হেডকোয়ার্টারের সঙ্গে যুক্ত। এই খবর ইত্তেফাকসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশ হলে রেলমন্ত্রী টিকিট ছাড়া ভ্রমণকারীরা তার আত্মীয় নয় বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

Previous articleরেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে বিনা টিকেটে ট্রেনে ভ্রমণ: টিটিই বরখাস্তের ঘটনায় ৩ সদস্যের তদন্ত কমটি
Next articleঈদ শেষে রাজধানীর কর্মস্থলে ফিরতে রংপুরের যাত্রীদের চরম ভোগান্তি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।