ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্র ফজলি আমের জিআই স্বত্ত্ব দাবি করার পর, পাল্টা দাবি জানায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ অবশেষে ফজলি আম কাউকেই নিরাশ না করে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ উভয় জেলার ফজলি হিসেবে জিআই স্বীকৃতি পেল।

মঙ্গলবার (২৪ মে) এ নিয়ে ঢাকায় শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে পেটেন্ট, ডিজাইন ও ট্রেডমার্কস অধিদফতরের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত সচিব) যনেন্দ্রনাথ সরকার রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জের ফজলি আমকে যৌথভাবে জিআই পণ্য হিসেবে আদেশ দেন।

রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আলীম উদ্দিন জানান, তিনি রাজশাহীর পক্ষে শুনানিতে অংশ নিয়েছিরেন। সেখানে তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের পক্ষে জাহাঙ্গীর সেলিম ও মুনজের আলমসহ ৬ জন অংশ নেন। তারাও চাঁপাইনবাবগঞ্জের পক্ষে তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন। প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে চলা শুনানি শেষে বিকালে আদেশ দেওয়া হয়। তাতে যৌথভাবে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জকে ফজলি আমের জন্য জিআই সনদের স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

ড. আলীম উদ্দিন বলেন, এখন আদেশের বিরুদ্ধে কোনো পক্ষ সংক্ষুব্ধ হলে আদালতে যেতে পারবেন। রাজশাহীর জন্য কী করা হবে, সেটি পরবর্তীতে ভেবে তারা সিদ্ধান্ত নেবেন।

অন্যদিকে আবেদনকারী মুনজের আলম মানিক এ বিজয় চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীর ঐক্যবদ্ধ চেষ্টার বিজয় দাবি করে বলেন, শুনানির ফলাফল লিখিত আকারে আগামী রোববার পাওয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আলীম উদ্দীন ভৌগলিক পণ্য নির্দেশক হিসেবে রাজশাহীর বাঘা ফজলি নামে ফজলি আমের উৎপত্তিস্থল ও এর জীবনচক্র রাজশাহীর দাবি করে আমটির পূর্ব ইতিহাস তাদের পক্ষে উল্লেখ করে এর মেধাস্বত্ত্ব দাবি করে পণ্য ব্যবহারকারীর নিবন্ধনের জন্য ১৫ নম্বর আবেদন করেন ২০১৭ সালের ৯ মার্চে।

বিষয়টি জানার পর চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. মুনজের আলম মানিক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার পক্ষে ফজলি আমকে রাজশাহীর ভৌগলিক পণ্য নিবন্ধনের বিরোধিতা করে চলতি বছরের ১ মার্চ একটি মামলা দায়ের করেন। যার স্মারক নং-জিআই অপজিশন মামলা নং-১/২০২১/২২০।

Previous articleরংপুরে নারীকে মাথায় পাথর দিয়ে আঘাত করে নৃশংস ভাবে হত্যা, একজনের যাবজ্জীবন
Next articleচাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে নদীতে গোসলে করতে নেমে ২ শিশুর মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।