বাংলাদেশ প্রতিবেদক: যৌক্তিক কারণ ছাড়া ঈদের আগে-পরে ৭ দিন এক জেলা থেকে অন্য জেলায় মোটরসাইকেল চালানো যাবে না। এছাড়া মহাসড়কে বন্ধ থাকবে রাইড শেয়ারিং। এমন নির্দেশনা দিয়েছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। কিন্তু এই নির্দেশনা মানছে না মোটরসাইকেল চালক ও রাইড শেয়ারিং করা চালকরা। মহাসড়কে কোনো রকম আইনি বাধা ছাড়াই তারা চলাচল করছেন নির্বিঘ্নে।

অন্যদিকে অনেক আগে থেকেই উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে মহাসড়কে অবৈধ থ্রি-হুইলার চলাচলের উপর। সেটিও মানছে না কেউ। এদের বিরুদ্ধে কার্যকর কোনো আইনি পদক্ষেপও গ্রহণ করছে না হাইওয়ে পুলিশ। কয়েকটি মামলা দিয়েই তারা বলছেন, অবৈধ থ্রি-হুইলার মহাসড়কে যাতে চলাচল না করতে পারে সে ব্যাপারে আমরা জিরো টলারেন্সে। কিন্তু সেই জিরো টলারেন্সের বাস্তবায়ন দেখা যায়নি মহাসড়কে।

শুক্রবার (৮ জুলাই) সকালে সরেজমিন ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ীর অংশে এমনই চিত্র চোখে পড়েছে। কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই এই মহাসড়কটি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে থ্রি-হুইলাগুলো।

দেখা গেছে, পাটুরিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা ফেরি ও লঞ্চের যাত্রীদের দৌলতদিয়া বাস টার্মিনালের সামনের মহাসড়ক থেকে তুলে নিয়ে তারা ছুটছেন বিভিন্ন জেলায়। মহাসড়কে এসব অবৈধ থ্রি-হুইলারের কারণে বাড়ছে সড়ক দুর্ঘটনা।

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) ভোরে রাজবাড়ী বড়পুল মোড় এলাকার বাস মালিক সমিতির সামনে একটি মাহেন্দ্র নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে দুইজন যাত্রী নিহত হন। এ ঘটনায় আরো এক যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি
ফরিদপুরে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উচ্চ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে কিভাবে মহাসড়কে থ্রি-হুইলার চালাচ্ছেন এমন প্রশ্ন করলে কোনো চালকই কথা বলতে রাজি হননি।

সরেজমিন দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে মহাসড়কে দেখা যায়, সরকারি নিষেধ অমান্য করে প্রিয়জনদের সাথে ঈদ করতে ঢাকা ছেড়ে গ্রামে ফিরছেন সপরিবারে মোটরসাইকেল চালকেরা। প্রতিটি মোটরসাইকেলেই রয়েছে একজন করে আরোহী। আবার অনেক মোটরসাইকেলে রয়েছেন নারী ও শিশু। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই গ্রামে ফিরছেন তারা।

একাধিক মোটরসাইকেল চালক বলেন, সরকার যে নির্দেশনা দিয়েছেন সেটা আমাদের মেনে চলা উচিত। কিন্তু কী করবো বলেন। গ্রামে তো ফিরতেই হবে। এ সময় তারা মহাসড়কে বাইক চালানোয় অনেক ঝুঁকি থাকে বলে স্বীকার করেন।

তবে হঠাৎ করে এ নিষধাজ্ঞা দেয়ায় সংশ্লিষ্টরা মানতে অভ্যস্থ হয়ে ওঠেননি বলে জানান।

আহলাদিপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: তরিকুল ইসলাম বলেন, মহাসড়কে অবৈধ থ্রি-হুইলার চলার কোনো সুযোগ নেই। এ বিষয়ে আমরা জিরো টলারেন্সে রয়েছি। বৃহস্পতিবারও বেশ কিছু মাহেন্দ্রর বিরুদ্ধে মামলা করেছি। মাহেন্দ্রর বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

তাহলে আজ কিভাবে চলছে এমন প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, চলার তো কথা না। আজও দুটি টিম কাজ করছে। বিষয়টি আমি দেখছি।

Previous articleযাত্রীর চাপে ভেঙে গেল ট্রেনের স্প্রিং, চরম ভোগান্তি
Next articleবঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম প্রান্তে বাস-লরি সংঘর্ষে নিহত ২
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।