বাংলাদেশ ডেস্ক: যাকে বলে দেশের প্রতি দায়বদ্ধতা! অসুস্থ শরীরে দেশের জার্সি পরে বিশ্ব জয়ের স্বপ্ন দেখেছিলেন মোহম্মদ রিজওয়ান। তাই বোধহয় আইসিইউ থেকে বেরিয়ে এসেই মাঠে নেমে পড়েছিলেন তিনি। শুধু মাঠেই নামেননি। ওপেন করতে নেমে ৫২ বলে ৬৭ রানের নির্ভরযোগ্য এক ইনিংস খেলেন তিনি। যে কারণে দল হারলেও, বিশ্বের কোটি কোটি ক্রিকেটপ্রেমীর মন জয় করলেন রিজওয়ান।

বুধবারই জানা গিয়েছিল, রিজওয়ান এবং শোয়েব মালিক ফ্লু’তে আক্রান্ত। যে কারণে তারা বুধবার অনুশীলনও করেননি। তবে দুই ক্রিকেটারই বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলেছেন। যদিও সেমিফাইনালে হেরে বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে যেতে হয়েছে পাকিস্তানকে। তবে রিজওয়ানের দায়বদ্ধতাকে কুর্নিশ জানাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্ব।

পাকিস্তান দলের চিকিৎসক নাজিব সোমরো জানিয়েছেন ‘৯ নভেম্বর রিজওয়ান আমাদের বুকের ব্যথার কথা জানায়। এজন্য তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সুস্থ হয়ে উঠতে তাকে দুই দিনই ইনন্টেন্সিভ কেয়ার ইউনিটের বেডে থাকতে হয়েছে। রিজওয়ানকে মাঠে নামনোর সিদ্ধান্তটা পুরো টিম ম্যানেজম্যান্ট মিলে নিয়েছে। এটা দলের জন্য এক প্রকার মানসিক পরীক্ষাও ছিল। তাই আমরা পুরো বিষয়টি দলের বাইরে যেতে দেইনি।’

হাসপাতাল থেকে ফিরেই সেমিফাইনালে খেলার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে লাগেন পাকিস্তান ওপেনার। অবিশ্বাস্যভাবে ম্যাচের পূর্বে খেলার জন্য নিজেকে ফিট হিসেবে প্রমাণ করেন। নাজিব জানালেন, ‘বেশ দ্রুত সে সেড়ে উঠেছে। দেশের হয়ে খেলতে সে বরাবরই দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আর, সেটা সে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচেই প্রমাণ করেছে।’

রিজওয়ানের হাসপাতালের বেডে শুয়ে থাকার একটি ছবি সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে পাকিস্তানের সাবেক তারকা পেসার শোয়েব আখতার লেখেন, ‘ভাবা যায়, হাসপাতালের বেডে শুয়ে থাকা মানুষটাই আজ তার দেশের জার্সিতে খেলেছে এবং সেরাটা দিয়েছে। তার জন্য অনেক সম্মান রইল।’

Previous articleশ্রীবরদীতে বন্যপ্রাণী হত্যাকান্ডে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ
Next articleহিজলায় তুচ্ছ ঘটনায় কিশোর গ্যাং এর হামলায় আহত ২, ইজিবাইক ভাঙচুর
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।