রংপুর অঞ্চলের অন্যতম সমস্যা জঙ্গিবাদ বর্তমানে শূন্য পর্যায়: বেনজির আহমেদ

জয়নাল অবেদীন: হতদরিদ্র লোকজন দারিদ্রের করাল গ্রাসে বিচলিত হয়ে সীমান্তে মাদক ব্যবসা ও চোরাচালানে যুক্ত হয়ে পড়ছে। তাই তাদের দারিদ্রতা দূর করতে পারলে সীমান্তে মাদক ব্যবসা বহুলাংশে কমে যাবে এছাড়াও রংপুর অঞ্চলে জঙ্গিবাদ অন্যতম সমস্যা। এই সমস্যা মোকাবিলায় র‌্যাবের বিচক্ষণ তৎপরতায় তা বর্তমানে শূন্য পর্যায়ে চলে আসছে। এই অঞ্চলের নিরাপত্তা ও সামাজিক স্থিতিশীলতা রক্ষায় সদা সজাগ রয়েছে রংপুর র‌্যাব-১৩। শনিবার রাতে রংপুর র‌্যাব ১৩‘র সপ্তম বর্ষে পর্দাপন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে এসে কথাগুলো বলেছেন র‌্যাব প্রধান বেনজির আহমেদ। র‌্যাবের মহাপরিচালক আরও বলেন রংপুর বিভাগের অধিকাংশ জেলাই সীমান্তবর্তী হওয়ায় এই অঞ্চলে মাদক সহ বিভিন্ন চোরাচালান খুব বেশি হয়ে থাকে। সীমান্তবর্তী এলাকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর দারিদ্রতার করাল গ্রাসে বিচলিত হয়ে মাদকসহ চোরাচালান ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছে। তাই তাদের উন্নয়নে সরকারি বেসরকারি সমন্বিত পদক্ষেপের মাধ্যমে দারিদ্র দূর করলে মাদক ও চোরাচালান ব্যবসা অনেকাংশে দূর হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন ।জাকজমকপূর্ণ ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিখি ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন । তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জঙ্গীবাদ, দূর্ণীতিসহ সব ধরনের বিশৃঙ্খলা প্রতিরোধে কাজ করছে র‌্যাব। তাদের এ পথচলা গৌরবের। বাংলাদেশে অভ্যন্তরীণ যে কোন হুমকি মোকাবিলায় র‌্যাবের বিচক্ষণ চৌকষ সদস্যরা সদা সজাগ রয়েছেন। আলোচনা সভা শেষে কেক কেটে ও আতশবাজি ফাটিয়ে বর্ষপূর্তি উদযাপন করা হয়। এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন রেজা আহমেদ ফেরদৌস, অধিনায়ক র‌্যাব-১৩। এর আগে নৈশ ভোজে অতিথিদের আপ্যায়ন করা হয় । অনুষ্ঠানে বিভাগীয় প্রশাসন রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি জেলা প্রশাসন, সাংবাদিক সহ আমন্ত্রিত অতিথিগণ উপস্থিত ছিলেন ।