বাংলাদেশ প্রতিবেদক: থানায় বসে কোনো হত্যার পরিকল্পনা হতে পারে না বলে জানিয়েছেন পুলিশের আইজি বেনজীর আহমেদ। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) পুলিশে অপারেশনাল গিয়ার প্রচলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। এসব ঘটনায় যারা জড়িত, তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

সময়ের বিবর্তনে অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে এগিয়ে চলছে বাংলাদেশ পুলিশ। পরিবেশ-পিরস্থিতি বিবেচনায় ও বাস্তবতার নিরিখে নানাভাবে পরিবর্তিত হচ্ছে পুলিশ। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ও জাতির সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে এবং সাধারণ মানুষের কাছে পুলিশি সেবাকে সহজে পৌঁছে দিতে বাংলাদেশ পুলিশ বিভিন্ন সময় নানা নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তারই সর্বশেষ সংযোজন অপারেশনাল গিয়ার প্রচলন। বিশ্বের অন্যান্য দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অনেক আগে থেকে এটি ব্যবহার করলেও বাংলাদেশে এটিই প্রথম এর ব্যবহার।

অত্যাধুনিক এই অপারেশনাল গিয়ারে ট্যাকটিকাল বেল্ট, স্মল আর্মস উইথ থাই হোলস্টার এবং হ্যান্ডস ফ্রিকমিউনিকেশন এই তিনটি বিষয় যুক্ত থাকবে, যা একজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহজে কাজ করতে সহায়তা করবে।

রাজারবাগে অপারেশনাল গিয়ার প্রচলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বেনজীর আহমেদ বলেন, এই গিয়ার ব্যবহারের ফলে পুলিশের কাজে সহায়তা হবে এবং দ্রুত কাজ করা যাবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি জানান, থানায় বসে কোনো হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা হতে পারে না। এ ধরনের ঘটনায় যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে ব্যবস্থা।

অনুষ্ঠানে ডিএমপি কমিশনার বলেন, থানায় গিয়ে একজন সাধারণ মানুষ যাতে প্রকৃত সেবাটি যাতে পায় সে লক্ষ্যে কাজ করছে ডিএমপি।

তিনি আরও বলেন, একজন অসহায় মানুষ থানায় গেলে সে যেন থানাকে তার আশ্রয়স্থল ভাবে এবং থানাকে উপকারী বন্ধু হিসেবে ভাবে।

বুধবার থেকে প্রাথমিকভাবে ঢাকা ও চট্টগ্রামে অপারেশনাল গিয়ারের ব্যবহার শুরু করা হলেও আস্তে আস্তে তার ব্যবহার চালু করা হবে পুরো বাংলাদেশে।