তাবারক হোসেন আজাদ: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে অনিয়মের মাধ্যমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিম্নমানের কংকর ও ইট দিয়ে সাড়ে ৮ লাখ টাকার সংস্কার কাজ করার অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে। কাজের সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত না থাকায় এ অনিয়ম হচ্ছে বলে হাসপাতালের কর্মচারী ও স্থানীয় লোকজন জানায়। সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে জানা যায়, গত ফেব্রুয়ারী মাসের মাঝামাঝি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনের সামনে চত্তরটি সাড়ে ৮ লাখ টাকা টেন্ডারের বিনিময় ২১১৭ ঘনফিট সংস্কারের কাজ পান জাহাঙ্গীর এন্টারপ্রাইজ নামে রায়পুরের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। গত শুক্রবার থেকে ঠিকাদার তার কাজ শুরু করেন। এতে পূরনো ইট তুলে পুনরায় সেই ইট ও কংকর দিয়ে সংস্কার কাজ করছেন। অভিযোগ পেয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এবং জেলা সিভিল সার্জন অফিসের স্বাস্থ্য প্রকৌশলী সরেজমিনে পরিদর্শন করেন ও অনিয়ম করে সংস্কার কাজ করা যাবে মর্মে সতর্ক করে দেন ঠিকাদারকে। এ বিষয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জাহাঙ্গীর এন্টারপ্রাইজের মালিক মোঃ জাহাঙ্গীর বলেন, হাসপাতালের সংস্কার কাজে কোন অনিয়ম বা নিম্নমানের কংকর ও ইট ব্যবহার করা হচ্ছে না। যারা অভিযোগ করেছেন তারা মিথ্যা বলেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মোঃ জাকির হোসেন ও স্বাস্থ্য প্রকৌশলী মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, অনিয়মের মাধ্যমে নিম্নমানের কংকর ব্যবহার ও পূরনো ইট তুলে

পুনরায় সংস্কার কাজে লাগানোর ঘটনায় ঠিকাদারকে সতর্ক করা হয়েছে। সঠিকভাবে কাজ করার জন্য তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে আবারও কাজের উপস্থিত থাকা হবে।