কাগজ প্রতিনিধি: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে প্রেমিকার আত্মহত্যার খবর শুনে আত্মহত্যা করেছে এক প্রেমিক। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। নিহত প্রেমিকা উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের পাশাকোট গ্রামের নুরুল ইসলামের মেয়ে রিমা আক্তার (১৮) ও প্রেমিক পাশ্ববর্তী মুন্সিরহাট ইউনিয়নের চাঁনপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে রুমন (১৯)। আজ দুপুরে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন চৌদ্দগ্রাম থানার পরিদর্শক তদন্ত শুভ রঞ্জন চাকমা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মুন্সিরহাট প্রকৌশলী ওয়াহিদুর রহমান ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী রিমা আক্তারের সঙ্গে কলেজের ছাত্র নোমান ওরফে রুমনের দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। উভয়ের পরিবার তাদের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় প্রেমিকা রিমা রোববার বিকালে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি থানায় নিয়ে যায়।

এদিকে প্রেমিকার আত্মহত্যার খবর পেয়ে রাতেই কুমিল্লা পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের ছাত্রাবাসে বিষপানে আত্মহত্যা করে প্রেমিক রুমন।
এর আগেও একবার রুমন আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল। সদর দক্ষিণ থানা পুলিশ রুমনের লাশ উদ্ধার করেছে।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার সেলিম মিয়া জানান, রুমন তার প্রেমিকা রুমা আক্তারের মৃত্যুর খবর শুনে শোকাহত হয়ে নিজেই আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি খুবই মর্মাহত।

সদর দক্ষিণ থানার পরিদর্শক তদন্ত কমল কৃষ্ণ ধর বলেন, রুমন নামের এক যুবকের আত্মহত্যার খবর পেয়েছি। এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি তদন্ত শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, রুমা আক্তারের লাশ উদ্ধার শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।