কাগজ প্রতিনিধি: নোয়াখালীর এওজবালিয়াতে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ফারুক নামে এক ভবন নির্মাণ শ্রমিক। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। গত রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় হত্যাকারীকে না পেয়ে তার বাবা আবুল কাশেমকে আটক করেছে।
এলাকাবাসী জানায়, এওজবালিয়া গ্রামের নুর মোহাম্মদের মেয়ে স্থানীয় স্কুলের অষ্ঠম শ্রেণির ছাত্রী রুমানার সাথে একই এলাকার তার তালাতো ভাই আবুল কাশেমের পুত্র ফারুকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। রবিবার রাতে ফারুকের সাথে রুমানার কথা কাটাকাটি হয়। এ পর্যায়ে ফারুক রুমানার মাথায় আঘাত করে। পরে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। রাত ১২টায় রুমানাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে। পরে সে মারা যায়। পুলিশ ফারুক কে না পেয়ে তার বাবাকে আটক করে।
সুধারাম মডেল থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, মেয়েটিকে বিকেলে থাপ্পর দেওয়া হয়।পরে রাতে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট আসলে দেখা যাবে।

Previous articleচৈত্রের বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে রাজধানী
Next articleমাছের বদলে জালে উঠলো গুলি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।