পাবনায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা-মারপিটের প্রতিবাদে মানববন্ধন

কামাল সিদ্দিকী: পাবনার বেড়া উপজেলার আমিনপুরে স্থানীয় জামাত-শিবিরের সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে এক মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদসহ ভাংচুর, লটুপাট ও মারপিটের ঘটনায় মানববন্ধন ও পথ সমাবেশ করেছে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা। মঙ্গলবার বেলা ১০ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত আমিনপুর বাজারে পাকাসড়কের পাশে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। মানববন্ধনে অভিযোগ করা হয়, স্থানীয় জামাতের আমীর রাজাকারপুত্র রফিকুল মুন্সী, জামাত নেতা সাত্তার মুন্সী, রাজাকার ধনী মুন্সী ও জামাত নেতা লিয়াতক মুন্সীর সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, বিগত সময়ে বিএনপি-জামাত জোটের সময়ে এদের দাপট ও অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকার মানুষ। নতুন করে শুরু করেছে তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড। গত ২৪ আগস্ট খাস আমিনপুর গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা মরহুম এম এ গণি হাবিলদারের বাড়ি উচ্ছেদ করতে বিভিন্ন প্রক্রিয়া চালায়। অভিযুক্ত রফিকুল মুন্সী ও তার লোকজন স্থানীয় ভাবে জনপ্রতিনিধি ও প্রধানদের মাধ্যমে ডেকে সালিশী বৈঠকের ব্যবস্থা করা হলেও রাজাকার পুত্র জামাত নেতা রফিকুল মুন্সী সে বৈঠক অমান্য করে মুক্তিযোদ্ধার বসত বাড়ীঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে। এ সময় ওই মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বেধরক মারপিট করে। মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করে পথসমাবেশে জাতসাখিনী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউল হক বাবু, জাতসাখিনী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ইসহাক আলী, সাবেক কমান্ডার মাজেদ রহমানসহ আরও অনেকে বক্তব্য দেন। মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। এ বিষয়ে আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মমিনুল ইসলাম পিপিএম বলেন, এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী মরিয়ম বেগম বাদী হয়ে তিনজনের নাম উল্লেখসহ ১০/১২ জনকে অভিযুক্ত করে ২ সেপ্টেম্বর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে।