রাজাপুরে নববধূর মৃতদেহ উদ্ধার

রেজাউল ইসলাম পলাশ: ঝালকাঠির রাজাপুরে মুনিয়া (১৮) নামে এক গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার বিকাল ৪ টায় উপজেলার সাতুরিয়া ইউনিয়নের উত্তর তারাবুনিয়া গ্রামের বাড়ি থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে রাজাপুর থানা পুলিশ। গৃহবধু মুনিয়া পাশ্ববর্তী উপজেলা ভান্ডারিয়ার রাজপাশা গ্রামের মোঃ সোহবার হাওলাদারের মেয়ে। মৃত মুনিয়ার ভাই মোঃ সোলায়মান ও মা নাসিমা বেগম জানায়, দুই মাস পূর্বে রাজাপুর উপজেলার উত্তর তারাবুনিয়া গ্রামের মোঃ মতিয়ার রহমান মোল্লার পুত্র মোঃ সুমন মোল্লার সাথে মুনিয়ার প্রেমের সম্পর্ক মাধ্যমে বিবাহ হয়। যশোরে একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে সুমন মোল্লার চাকুরি করার সুবাদে তারা বিবাহের পরে যশোরের রানির হাট এলাকায় বসবাস শুরু করে। মৃতের স্বামী সুমন মোল্লা শুক্রবার দিবাগত রাত ৯ টায় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তাদেরকে জানায় মুনিয়ার ব্রেনস্টোক হয়েছে। কয়েক ঘন্টা পরে ভোর রাতে যশোর থেকে মুনিয়ার মৃতদেহ নিয়ে স্বামী সুমন রাজাপুরের নিজ বাড়িতে আসে। মৃতদেহ দেখে মুনিয়ার পরিবারের সন্দেহ হলে অভিযোগ নিয়ে শনিবার ১২ অক্টোবর শনিবার বিকেলে রাজাপুর থানায় আসে। অভিযোগ পেয়ে থানা পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। মুনিয়ার শ্বাশুরি নুরবানু জানায়, তার পত্রবধু মুনিয়া হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে পরলে সুমন মুনিয়াকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। রাজাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদও হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় রাজাপুর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।