স্বামীকে কুপিয়ে জখম: শ্বশুর-শাশুড়ি ও দুই দেবরের বিরুদ্ধে মামলা করে বিপাকে গৃহবধূ

তাবারক হোসেন আজাদ: স্বামীকে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় থানায় ও আদালতে মামলা করায় স্বজনদের হুমকিতে বিপাকে রয়েছে গৃহবধু মৌসুমি আক্তার নামে মামলার বাদী। প্রতিনিয়ত মামলা তুলে নেওয়ার জন্য মোবাইল ও স্বজনদের মাধ্যমে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন মৌসুমি আক্তার। বৃহস্পতিবার বিকেলে লক্ষ্মীপুরের আদালত চত্বরে গেলে তিনি এসব কথা বলেন। সোমবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে শ্বশুর রুহুল আমিন, দেবর মাহফুজুর রহমান মাজেদ ও মোজাম্মেল হোসেন আত্নসমর্পন করলে বিচারক শাশুড়ি মরিয়ম বেগমের জামিন মঞ্জুর করে অন্যদের জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয়। উল্লেখ গত ৭ ফেব্রুয়ারী সকালে শ্বশুর বাড়ি থেকে ৩ লাখ টাকা এনে না দেওয়ায় মো: মামুন কবির (৩৫) নামে ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীর ফরিদগঞ্জ শাখা কর্মকর্তা কে কুপিয়ে জখম ও গৃহবধু মৌসুমি আক্তারকে পিটিয়ে আহত করে আসামীরা। এ ঘটনায় ৮ ফেব্রুয়ারী রায়পুর থানায় ও লক্ষ্মীপুর আদালতে ইন্সুরেন্স কর্মকর্তার স্ত্রী মৌসুমী বাদী হয়ে শ্বশুর রুহুল আমিন, শ্বাশুড়ি মরিয়ম বেগম, দেবর মাহফুজুর রহমান মাজেদ ও মোজাম্মেল হোসেন কে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলার বাদীর আইনজীবী মো: মানিক বলেন, আসামী রুহুল আমিন খারাপ প্রকৃতির মানুষ। নিজের ২য় ছেলে ও পুত্রবধূকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করার ঘটনার মামলায় বিচারক মাকে জামিন দিয়ে অপর আসামীদের কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয়। বৃহস্পতিবার দায়রা জজ আদালতে তিনজনের জন্য জামিন চেয়ে আদালত থেকে বের হওয়ার সময় বাদীকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিয়েছে বলে বাদী জানান। সোমবার র্কোট পুলিশ হেফাজতে থেকে কারাগারে নেওয়ার সময় অভিযুক্ত রুহুল আমিন জানান, আমি এ ঘটনায় নির্দোষ। মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে ও আমার দুই ছেলেকে কারাগারে পাঠিয়েছে। আমিও তার বিরুদ্ধে থানায় ও পুলিশ সুপার কার্যালয়ে অভিযোগ দিয়েছি। হুমকি দেওয়ার বিষয়টি শাশুড়ি মরিয়ম বেগম অস্বীকার করেন।

Previous articleটাঙ্গাইলে এলেঙ্গা-ভূঞাপুর লিংক রোডে বাস চাপায় ২ বন্ধু নিহত
Next articleমেয়েকে পরীক্ষা কেন্দ্রে দিতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন মা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।