কু‌ষ্টিয়ায় ভাড়া না দেয়ায় বাড়ির মালিকের দেয়া আগুনে দগ্ধ সেই গর্ভবতী জুলেখার মৃত্যু

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: স্বামী-সংসার নিয়ে জুলেখা খাতুনের দিনকাল বেশ ভালই চলছিল। কিন্তু এরই মধ্যে মহামারি করোনা ভাইরার এলো তার জীবনে অভিশাপ হয়ে। লকডাউনের ফাঁদে পড়ে বন্ধ হয়ে গেল পরিবারের উপার্জন। বাসা ভাড়া দিতে না পেরে অবশেষে জীবনটাই দিয়ে দিতে হলো জুলেখাকে। শুক্রবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফা এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওই নারীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। অভিযুক্ত বাড়িওয়ালার ছেলে রনিকে আটক করেছে পুলিশ।

এর আগে বৃহস্পতিবার কুষ্টিয়া শহরের কমলাপুরে ভাড়া বাসায় গর্ভবতী জুলেখা খাতুন এর গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয় বাড়িওয়ালা বজলুল হকের ছেলে রনি। জুলেখার চিৎকারে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে জুলেখার মৃত্যু হয়।