নবীগঞ্জে পাওনা ৫০০ টাকা চাওয়ায় বৃদ্ধ খুন

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় পাওনা ৫০০ টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে সৈয়দ আলী (৬০) নামে এক বৃদ্ধ খুন হয়েছেন।

সোমবার রাতে উপজেলার গজনাইপুর ইউনিয়নের দেওপাড়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সৈয়দ আলী (৬০) দেওপাড়া গ্রামের মৃত রাহাত উল্ল্যাহর ছেলে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর ইউনিয়নের দেওপাড়া গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে সুমন মিয়া একই গ্রামের মৃত মতিন মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়ার কাছে ৫০০ টাকা পাওনা ছিল।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে রুবেলের কাছে পাওনা ৫০০ টাকা ফেরত চায় সুমন মিয়া। পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে সুমন ও রুবেলের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়।

পরে স্থানীয় মুরুব্বিরা পরিস্থিতি শান্ত করে ওইদিনই রাতে বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে উভয়কে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। পরে দেওপাড়া বাজারে স্থানীয় মুরুব্বিয়ানসহ বিষয়টি মীমাংসার জন্য বসেন।

এসময় উক্ত বৈঠকে সৈয়দ আলী, তার ছেলে সুমন মিয়াসহ আত্মীয় স্বজন ও রুবেল মিয়ার আত্মীয়স্বজন উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শুরু হওয়া মাত্রই হঠাৎ করে রুবেল ও তার লোকজন সুমনের বাবা সৈয়দ আলী ও চাচা আনছব আলীর ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে হামলা চালায়।

এসময় রুবেল তার হাতে থাকা ছুরি দিয়ে সৈয়দ আলী ও আনছব আলীকে আঘাত করে রক্তাক্ত করে।

গুরুতর অবস্থায় আহতদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক সৈয়দ আলীকে মৃত ঘোষণা করেন। আশংকাজনক অবস্থায় আনছব আলীকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

তাৎক্ষণিক ছুরিকাঘাতকারী রুবেল মিয়াসহ দুজনকে বাহুবল থানা পুলিশের সহযোগীতায় আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনায় মূলহোতা রুবেলসহ দুজনকে আটক করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।