মানিকগঞ্জের সিংগাইরে নিখোঁজের তিনদিন পর বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

মিজানুর রহমান বাদল: মানিকগঞ্জের সিংগাইরে নিখোঁজের তিনদিন পর ওহাব আলী (৭০) নামের এক বৃদ্ধর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। পরিবারের দাবী ছেলেদের জমি লিখে না দেয়ায় হত্যার পর লাশ পুকুওে ফেলেছে। আজ বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) সিংগাইর থানার পুলিশ নিহত ওহাব আলীর লাশ দাশেরহাটির এলাকার একটি পুকুর থেকে উদ্ধার করেছে। নিহত ওহাব আলীর বাড়ী উপজেলার বলধারা ইউনিয়নের জৈল্লা গ্রামে। সে ওই গ্রামের মৃত সামেজুদ্দিনের ছেলে। থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার চারিগ্রাম ইউনিয়নের দাশেরহাটি গ্রামের হালিমা আক্তার আজ সকাল ১১ টার দিকে পার্শ্ববতী চকে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যায়। একটি পুকুরের বিন্যার ঝোপে একটি লাশ দেখতে পায়। এরপর এলাকাবাসীকে লাশের খবর জানায়। স্থানীয়রা সিংগাইর থানাপুলিশকে লাশের খবর জানালে। পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহতের কন্যা চায়না আক্তার অভিযোগ করে বলেন, আমার দুই ভাই চানমিয়া ও তারামিয়া চাপ দিয়ে আমার বাবার চকের জমি লিখে নেয়। এরপর দুই ভাইকে বাড়ী লিখে নেয়ার জন্য অনেক দিন ধরে চাপ দিতে থাকে। গত শনিবার সকালে আমার ভাই চানমিয়া আমার পিতা ওহাব আলীকে মারধর করেন। গত মঙ্গলবার চিকিৎসা করানো কথা বলে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। তিনদিনে তার কোন খোজ খবর পায়নি। আজ বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) সকাল ১১ টায় দাসের হাটি গ্রামের চকের একটি পুকুরে বিন্যার ঝোপে লাশের পেয়ে আমরা এসে আমার বাবার লাশ সনাক্ত করি।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার ওসি রকিবুজ্জামান বলেন, লাশ সনাক্ত হয়েছে গায়ে কোন আঘাতের চিনহ পাওয়া যায়নি। ময়না তদন্ত ছাড়া কিছুই বলা যাচ্ছেনা। থানায় কেউ হত্যার অভিযেগে দেয়নি।