খাগড়াছড়িতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় পুলিশ সদস্য গ্রেফতার

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় সোমবার সন্ধ্যায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় মো. নাজমুল হাসান (২৩) নামের এক পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে রাতেই নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা করেছিলেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নাজমুলের বাড়ি কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলার গোপালনগর গ্রামে। তিনি দীঘিনালা উপজেলার ভৈরফা অটলটিলা পুলিশ ক্যাম্পে কর্মরত ছিলেন।

ছাত্রীর পরিবার, পুলিশ ও মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসার পথে কনস্টেবল নাজমুলের সঙ্গে ওই ছাত্রীর পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্র ধরে সোমবার বিকেলে ওই ছাত্রীকে দেখা করতে বলেন নাজমুল। ছাত্রীটি দেখা করতে গেলে নাজমুল তাকে ধর্ষণ করেন। স্থানীয় যুবকেরা ঘটনটি টের পেয়ে ওই স্থান ঘিরে ফেলে। নাজমুল পালানোর চেষ্টা করলে তাকে ধাওয়া করে আটকে অটলটিলা পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) সন্তোষ কুমার মজুমদারের কাছে সোপর্দ করা হয়। পরে দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব গিয়ে তাকে থানায় নিয়ে যান।

দীঘিনালা থানার ওসি উত্তম চন্দ্র দেব গণমাধ্যমকে বলেন, ‘খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে কনস্টেবল নাজমুলকে থানায় নিয়ে আসি। ছাত্রীর বাবা নাজমুলকে আসামি করে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। পুলিশ সদস্যকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।’